প্রবেশপত্রের একটি ভুলেই লাশ হলেন পরীক্ষার্থী

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০২ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২০ ১৪২৬,   ০৯ শা'বান ১৪৪১

Akash

প্রবেশপত্রের একটি ভুলেই লাশ হলেন পরীক্ষার্থী

ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:১৪ ২ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

রাত পোহালেই এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। এরইমধ্যে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে শিক্ষার্থীরা। কিন্তু প্রবেশপত্রে নিজের বিভাগের নাম ভুল হওয়ায় এক পরীক্ষার্থী ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

রোববার দুপুরে নীলফামারীর ডোমার উপজেলার বোড়াগাড়ি ইউপির বাকডোকরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মৃত তৃঞ্চা রানী একই গ্রামের দুলাল রায়ের মেয়ে। তিনি মাহিগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়ার কথা ছিল।

মৃতের চাচি অলিনদিতা রানী জানান, তৃষ্ণা বাণিজ্য বিভাগ থেকে এবার পরীক্ষায় অংশ নিতেন। কিন্তু প্রবেশপত্রে বাণিজ্য বিভাগের পরিবর্তে মানবিক বিভাগ এসেছে। এতে তিনি স্কুলের বিদায় অনুষ্ঠান থেকে এসে নিজ কক্ষে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আড়ার সঙ্গে ফাঁস দেন।

মাহিগঞ্চ উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, ২৮ তারিখ বিকেলে প্রবেশপত্র বিদ্যালয়ে আসে। সব পরীক্ষার্থী প্রবেশপত্র নিয়ে গেলেও তৃঞ্চা নেয়নি। রোববার বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান শেষে প্রবেশপত্র নিয়ে জানেন তার বিভাগ ভুল এসেছে। তাকে পরীক্ষায় অংশ নেয়ার কথা বলেছি। কিন্তু বাড়িতে গিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শাকেরিনা বেগম জানান, প্রবেশপত্রটি আগে দিলে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাটি ঘটতো না। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডোমার থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান জানান, মরদেহ উদ্ধার করে সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর