টেস্টটিউব পদ্ধতিতে জন্মাল চিতা

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৭ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৫ ১৪২৬,   ১৪ শা'বান ১৪৪১

Akash

টেস্টটিউব পদ্ধতিতে জন্মাল চিতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:৫৮ ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৪:০১ ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ছবি: চিতাশাবক

ছবি: চিতাশাবক

কলাম্বাস চিড়িয়াখানা এবং অ্যাকুরিয়ামে জন্ম নিলো মায়াবী দুটি চিতা শাবক। তবে তারা শুধু মায়া দিয়েই আকৃষ্ট করেনি, ইতিহাসও গড়ে তুলেছে।

কিন্তু কি সেই কারণ যা এই চিতা শাবকদের এতোটা বিশেষায়িত করেছে?

প্রথমবারের মতো কলাম্বাস চিড়িয়াখানা এবং অ্যাকুরিয়ামে পরীক্ষামূলকভাবে ইন ভিট্রো ফার্টিলাইজেশন (আইভিএফ) বা টেস্টটিউব ও ভ্রূণ স্থানান্তরের মাধ্যমে দুটি চিতাশাবক জন্ম নেয়। 

কলম্বাস চিড়িয়াখানার পাশাপাশি স্মিথসোনিয়ান্স জাতীয় চিড়িয়াখানা ও সংরক্ষণ জীববিজ্ঞান ইনস্টিটিউট এবং ফসিলরিম বন্যপ্রাণী কেন্দ্র এই প্রচেষ্টাটির নেতৃত্বে ছিল।

চিতাশাবকটি নিয়ে কলম্বাস চিড়িয়াখানা টুইটারে একটি পোস্ট করে। 

ক্যাপশনে তারা জানায়, ইতিহাস সৃষ্টি হয়েছে। ইন ভিট্রো ফার্টিলাইজেশন (আইভিএফ) বা টেস্টটিউব ও ভ্রূণ স্থানান্তরের মাধ্যমে দুটি চিতাশাবক জন্ম নিয়েছে। এটি বিজ্ঞানের অন্যতম সাফল্য।

তারা আরো জানায়, কিবিবি নামের একটি চিতার দেহ থেকে ভ্রূণ সংগ্রহ করে ইজি নামের একটি চিতার দেহে স্থাপন করা হয়। ইজি সফলভাবে ভ্রূণটি ধারণ করে এবং বুধবার ওই দুটি চিতা শাবকের জন্ম দেয়। তবে এখনো তাদের নামকরণ হয়নি।

কলাম্বাস চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ জানায়, তিনবারের চেষ্টার পর তারা এ পদ্ধতিতে শাবক জন্ম দিতে সফল হয়েছেন। অত্যন্ত সতর্কতা এবং সাবধানতার সঙ্গে তারা এ পরীক্ষা চালান।

আইভিএফ পদ্ধতির গুরুত্ব প্রকাশ করে তারা বলেন, এতে স্বকীয়তা বজায় রেখে নিজস্ব পরিবেশে চিতাদের বংশবৃদ্ধি পাবে। 

তারা আরো জানান, এর আগে প্রায় দেড় যুগ আগে কৃত্রিম জরায়ুর মাধ্যমে সফলতার সঙ্গে চিতাশাবকের জন্ম হয়। 

চিতাশাবকের ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন>>>

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস