গৃহকর্মী থেকে যেভাবে আবুধাবিতে নৃত্যশিল্পী হলেন প্রিয়া

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০২ জুন ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ২০ ১৪২৭,   ১০ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

গৃহকর্মী থেকে যেভাবে আবুধাবিতে নৃত্যশিল্পী হলেন প্রিয়া

নিউজ ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:৩৪ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৬:১৪ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

প্রিয়া আক্তার। ছবি: সংগৃহীত

প্রিয়া আক্তার। ছবি: সংগৃহীত

মাত্র কয়েক মাস আগের কথা। গৃহকর্মী হিসেবে বাংলাদেশ থেকে আবুধাবি পাড়ি জমান বাংলাদেশি তরুণী প্রিয়া আক্তার। চলতি সপ্তাহে তিনি প্রায় তিন হাজার মানুষের সামনে মঞ্চে নৃত্য পরিবেশন করতে যাচ্ছেন। সাধারণ গৃহকর্মী থেকে নৃত্যশিল্পী হওয়ায় এখনো ঘোর কাটছে না প্রিয়ার।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের বার্তা সংস্থা ওয়ামকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে ২৬ বছরের প্রিয়া বলেন, আমার সন্দেহ হচ্ছে এটা বাস্তব নাকি স্বপ্ন!

ওই সাক্ষাৎকারে প্রিয়া তার গৃহকর্মী থেকে নৃত্যশিল্পী হওয়ার গল্প বিস্তারিত জানিয়েছেন। প্রিয়া জানান, বাংলাদেশে অবস্থানকালে বাড়িতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় তার মেয়ে মারাত্মকভাবে আহত হয়। প্রায় এক বছর ধরে মেয়ের চিকিৎসা করাতে হয়েছে। এতে প্রচুর টাকা খরচ হয়েছে। এক পর্যায়ে ঋণ করতে হয়েছে। এই অর্থ পরিশোধের জন্য তাকে গৃহকর্মীর ভিসায় আবুধাবিতে আসতে হয়েছে।

জানা যায়, আবুধাবিতে গৃহকর্মী হিসেবে আসা এক স্বদেশী বান্ধবীর সামনে একবার নেচেছিলেন প্রিয়া। ওই বান্ধবী সেই নাচার দৃশ্য স্মার্টফোনে ধারণ করেন। পরে ওই গৃহকর্মী তিনি যেখানে কাজ করতেন সেই বাড়ির গৃহকর্ত্রীকে দেখান। 

পরে ওই গৃহকর্ত্রী প্রিয়ার নাচের ভিডিওটি তার বন্ধু জনিয়া ম্যাথিউয়ের কাছে পাঠান। তিনি ‘ম্যাথিউ স্টাইল ডিভা’ নামে একটি ফেসবুক গ্রুপ পরিচালনা করেন। এটির সদস্য প্রায় ১২ হাজার।

এছাড়া তিনি গত পাঁচ বছর ধরে আবুধাবিতে ডানডিয়া নামে ভারতীয় একটি নৃত্য উৎসবের আয়োজন করে আসছেন। উৎসবে মেধাবী নারী নৃত্যশিল্পী ও গায়িকাদের অংশগ্রহণের জন্য অনুপ্রেরণা দেন ম্যাথিউ।

ম্যাথিউ জানান, আমি প্রিয়া আক্তারের প্রতিভায় বিস্মিত হয়েছি। সে গৃহকর্মী জেনে আশ্চর্য হয়েছিলাম। তার নাচ আমাকে বিখ্যাত বলিউড নৃত্যশিল্পী নোরা ফাতেহির কথা মনে করিয়ে দিয়েছে।

প্রসঙ্গত, আগামী ৩ অক্টোবর রাত ৮টা থেকে ১২ পর্যন্ত খলিফা পার্কে ডানডিয়া নৃত্য উৎসব অনুষ্ঠিত হবে। অনুষ্ঠানে প্রিয়া আক্তার দুই ভারতীয় নারীর সঙ্গে নাচবেন। সূত্র- খালিজ টাইমস

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর