উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় শিক্ষককে মারধর

ঢাকা, রোববার   ০৫ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২২ ১৪২৬,   ১১ শা'বান ১৪৪১

Akash

উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় শিক্ষককে মারধর

শেরপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৭:১৯ ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১২:২৬ ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

শেরপুরে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক ছাত্রীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় এক শিক্ষককে বেদম মারধর করেছে বখাটেরা।

রোববার বিকেলে সদর উপজেলার ধোপাঘাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে দুই বখাটেকে আটক করেছে পুলিশ।

আহত শিক্ষক মো. জসিম জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। তিনি শেরপুর সদর উপজেলার ধোপাঘাট এলাকার বাসিন্দা। ধোপাঘাট ন্যাশনাল কিন্ডার গার্টেন স্কুলের সহকারী শিক্ষক।

আটকরা হলেন শেরপুর পৌরসভার কসবা মোল্লাপাড়া এলাকার মো. পিয়ার ও মো. মারুফ। 

পুলিশ ও আহত শিক্ষকের দেয়া তথ্য মতে, রোববার বিকেল চারটার দিকে বিদ্যালয় ছুটি শেষে বাড়িতে ফেরার সময় ধোপাঘাট এলাকায় পিয়ার ও মারুফ নামে দুই বখাটে যুবক অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত শুরু করে। 

এ সময় ছাত্রীটির পেছনে ছিলেন শিক্ষক মো. জসিম৷ তিনি তাৎক্ষণিকভাবে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় ক্ষুব্ধ হয়ে পিয়ার ও মারুফ তাকে বেদম মারধর করে। এতে জসিম আহত হয়ে পড়েন। 

পরে স্থানীয়রা পিয়ার ও মারুফকে আটক করে সদর থানা-পুলিশে সোপর্দ করেন। আহত জসিমকে উদ্ধার করে শেরপুর জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ সংবাদ পেয়ে পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

সদর থানার এসআই মো. রুবেল মিয়া জানান, প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে এরইমধ্যে দুই যুবককে আটক করা হয়েছে। এখনো লিখিত কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি৷ অভিযোগ পেলে আইনানুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে/আরআর