এই সময় গরম পানি না খেলেই শারীরিক ক্ষতি!

ঢাকা, রোববার   ১২ জুলাই ২০২০,   আষাঢ় ২৮ ১৪২৭,   ২০ জ্বিলকদ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

এই সময় গরম পানি না খেলেই শারীরিক ক্ষতি!

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১০:৩৩ ৫ জুন ২০২০   আপডেট: ১০:৪৮ ৫ জুন ২০২০

ছবি: গরম পানির উপকারিতা

ছবি: গরম পানির উপকারিতা

অনেকেই হয়ত ভাবছেন, এই গরমে আবার গরম পানি পান করলে পিপাসা মিটবে না। তবে এই ধারণা ভুল, এই সময় ঠাণ্ডা পানির বদলে হালকা গরম পানি পান করে তেষ্টা মেটানোই সবচেয়ে বুদ্ধিমানের কাজ হবে। সারাদিন হালকা গরম পানিতে গলা ভেজালে এই সময় আপনি শারীরিকভাবে সুস্থ থাকবেন। 

নিজেকে ফিট রাখার পাশাপাশি শরীরের আর্দ্রতা ধরে রাখতে হালকা গরম পানি পানের বিকল্প নেই। শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতেও হালকা গরম পানির তুলনা নেই। এবার তবে জেনে নিন কেন নিয়মিত গরম পানি পান করবেন, এটি শরীরে কীভাবে কাজ করে এবং পানি আরো পুষ্টিকর করে তুলবেন কীভাবে-

> করোনাকালের প্রথম থেকেই কিন্তু সবাই গরম পানি খাওয়া ও ভাঁপ নেয়ার কথা বলে আসছেন। এটি নিশ্চয় আপনিও জানেন!

> খুব সকালে গরম পানি পান করলে তা শরীরের সঠিক ইলেক্ট্রোলাইট ভারসাম্য বজায় রাখে। সেই সঙ্গে দেহে উপস্থিত ক্ষতিকর পদার্থকে বের করে দেয়।

> আপনি যদি এই সময় মৌসুমী ফ্লু, সর্দি এবং কাশির সমস্যায় ভুগেন তবে সারাদিন অল্প করে গরম পানি পান করুন। এতে কফ-সর্দি জমে থাকলে তা দূর হবে।

> বুকে দীর্ঘ সময় কফ জমে থাকলে তা বের করার সবচেয়ে ভালো উপায় হলো সারাদিন হালকা গরম পানি পান করা। 

> প্রতিদিন সকালে গরম পানি পান করলে তা হজম ব্যবস্থা থেকে বিষাক্ত পদার্থগুলো বের করে দিতে সাহায্য করে। 

> হালকা গরম পানি গলা ও সাইনাসের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতেও সহায়তা করে। 

> হালকা গরম পানি অন্ত্রের খাদ্য অণুগুলো ভাঙতে সাহায্য করে। খাবার থেকে ভালোভাবে পুষ্টির শোষণের পাশাপাশি হজমে উন্নতি করতে সহায়তা করে। এটি ওজন নিয়ন্ত্রণে কার্যকরী।

> নিয়মিত গরম পানি খেলে ত্বকে জমাট বাধা তেল, ধুলোবালি থেকে সহজেই মুক্তি পাওয়া যায়। পেট পরিষ্কার থাকলে ব্রণ-ফুসকুড়ির সমস্যা থেকেও সহজেই দূরে থাকা যায়।

> দীর্ঘদিন ধরে যারা বাতের ব্যথায় ভুগছেন তারাও গরম পানি পান করতে পারেন। এতে শরীরে জমে থাকা অপ্রয়োজনীয় উপাদান ঘামের সঙ্গে বাইরে বেরিয়ে যাবে। ফলে ব্যথা বোধও ক্রমশ কমে আসবে।

> গরম পানি শরীরের এইজিং বা বয়স্ক হওয়ার প্রক্রিয়াটিকে ধীর করে দেয়। এর ফলে তারুণ্য ধরে রাখা যায়।

আমরা অনেকেই জানি সকালে খালি পেটে লেবু ও গরম পানি পানের উপকারিতা সম্পর্কে! শুধু এই পানীয় নয় বরং গরম পানিকে আরো পুষ্টিকর করে তুলতে এই উপায়গুলোও বাতলে দেখুন-

বুকের কফ জমা দূর করতে গরম পানি যেভাবে পান করবেন-

১ লিটার হালকা গরম পানি নিন। তার সঙ্গে একটি লেবু যোগ করুন। এবার ২ চা চামচ মধু নিন। সবকিছু ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। এরপর সারাদিন ধরে অল্প অল্প পান করুন। 

মধু এবং লেবু উভয়ই ভিটামিন সি, ডি, ই, কে এবং বি কমপ্লেক্স এবং বিটা ক্যারোটিন জাতীয় পুষ্টিতে ভরপুর। যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর পাশাপাশি ঠাণ্ডা, কাশি এবং ফ্লুতে চিকিত্সা করতে সহায়তা করে।

শরীরের বিষাক্ত পদার্থ বের করতে যেভাবে গরম পানি পান করবেন-

এক লিটার হালকা গরম পানি নিন। এর সঙ্গে কয়েকটি তুলসি পাতা ও সামান্য আদা আদা নিন। চাইলে এই উপাদানগুলো ফুটিয়েও নিতে পারেন। এই মিশ্রণটি শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থগুলো বের করে আনে এবং হজমশক্তি উন্নত করে। পাশাপাশি বিপাকের হার উন্নত করতেও সহায়তা করবে।

ওজন কমাতে যেভাবে গরম পানি পান করা উচিত-

জানেন কি? প্রতিদিন হালকা গরম পানি পান করেই আপনি রোগা হতে পারেন। অবাক হচ্ছেন নিশ্চয়! হালকা গরম পানির সঙ্গে এই ভেষজ মিশ্রণটি আপনার বাড়তি ওজন কমাতে সাহায্য করবে-

এক লিটার হালকা পানি নিন। এবার তার সঙ্গে এক চা চামচ জিরা, এক চা চামচ ধনিয়া ও এক চা চামচ মেথি মেশান। এই মিশ্রণটি ভালোভাবে ফুটিয়ে নিন। পানীয়টি সারাদিন ধরে অল্প করে খান। এই পানীয়টি কেবল ওজনই কমায় না, সেই সঙ্গে শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থগুলোও বের করে দেয়।

এবার তবে ভেবে দেখুন, ঠাণ্ডা পানিতে গলা ভেজানোর বদলে যদি আপনি সারাদিন অল্প করে হলেও গরম পানি পান করেন তবে আপনার শরীর কতটা লাভবান হবে। এই করোনাকালে নিজেকে সুস্থ রাখাটাই বড় চ্যালেঞ্জ। আর এ কারণেই শুধু স্বাদ বুঝেই নয় বরং পুষ্টিগুণ মেনে খাদ্যাভাসের অভ্যাস গড়ুন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস