চলতে চলতে ১০ বছর

ঢাকা, রোববার   ০৫ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২৩ ১৪২৬,   ১২ শা'বান ১৪৪১

Akash

চলতে চলতে ১০ বছর

বিনোদন প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:৫১ ১৯ মার্চ ২০২০   আপডেট: ২১:০২ ১৯ মার্চ ২০২০

মেহজাবিন চৌধুরী

মেহজাবিন চৌধুরী

চলতে চলতে ক্যারিয়ারের ১০ বছর পূর্ণ করলেন নাট্যাভিনেত্রী মেহজাবিন চৌধুরী। এই অভিনেত্রী চরিত্রের প্রয়োজনে কখনো রোমান্সে ভরপুর আদুরে প্রেমিকা, কখনো জীবন ঘনিষ্ঠ চরিত্রের প্রতিনিধি। যখন কাঁদেন মনে হয় কাঁদার জন্যই তার জন্ম, যখন হাঁসেন তখন মনে হয় কী প্রাণবন্ত তার হাঁসি। আবার যখন কষ্টেভরা জীবনের গল্পে দেখা মেলে মনে হয়, মেয়েটির জীবন কষ্ট দিয়েই ভরা। 

২০০৯ সালে লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে শোবিজে পা রাখেন মেহজাবিন। এরপরের বছর থেকে নিয়মিত হন অভিনয়ে। সে হিসাবে অভিনয় জীবনের ১০ বছর পূর্ণ করেছেন তিনি। আর এই দীর্ঘ সময়ে অনবদ্য অভিনয় দিয়ে দর্শক মহলে গ্রহণযোগ্যতা তৈরি করেছেন তিনি। শুধু তাই নয়, বর্তমান সময়ে নাট্যাঙ্গনের অঘোষিত শীর্ষ অভিনেত্রী সাদামাটা, মিষ্টভাষী মেহজাবিন। 

এই অবস্থানে আসার বিষয়ে মেহজাবিন বলেন, ১০ বছর ধরে একটানা এই ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করছি। শুরুর দিকে আমি শুটিং সেটে নিজের মত প্রকাশের যতটা স্বাধীনতা পেতাম, এখন তা আরো বেড়েছে। পুরুষ কিংবা নারী, ইন্ডাস্ট্রিতে এসে কেউই নিজের অবস্থান তৈরি অবস্থায় পান না। অবস্থান নিজের মেধা আর পরিশ্রম দিয়ে তৈরি করে নিতে হয়।

তিনি আরো বলেন, অভিনয় জীবনে সহ-শিল্পীদের কাছ থেকে দারুণ সহযোগিতা পেয়েছি। একজনকে এগিয়ে যেতে হলে নারী-পুরুষ সবারই সমান সহযোগিতা প্রয়োজন। আমার বেলায়ও সেটাই হয়েছে। কিছু ব্যতিক্রম বাদে আমার পুরুষ সহকর্মীরা আমাকে নারী হিসেবে নয়, সব সময় সহশিল্পী হিসেবে মূল্যায়ন করেছেন।

দর্শক থেকে নির্মাতা সবাই বলে, মেহজাবিনের অভিনয়ে আলাদা মুগ্ধতা আছে। এ কারণে খুব সহজেই দর্শকদের মনে স্থান করে নিতে পেরেছেন মেহজাবিন। ‘বড় ছেলে’ নাটকে তার অভিনয় দেখে মুগ্ধ হননি এমন দর্শক হয়তো খুঁজে পাওয়া কঠিন। সুভাষ ছড়িয়েছেন ‘বুকের বা পাশে’, ‘ঘুরে দাঁড়ানোর গল্প’, ‘বাবা আসবে’সহ অসংখ্য নাটকে। 

সব মিলিয়ে ছোটপদার্য় বেশ ভালোই কেটেছে তার। সামনেও ভালো কাজ দিয়ে আলোচনায় থাকতে চান তিনি। তার অভিনীত প্রথম নাটক ছিল ইফতেখার আহমেদ ফাহমি পরিচালিত ‘তুমি থাকো সিন্ধুপারে’। এ নাটকে তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন মাহফুজ আহমেদ। 

অভিনয়ের পাশাপাশি নাটক রচনাতেও হাত দিয়েছেন এ অভিনেত্রী। তার রচিত প্রথম নাটক ‘থার্ড আই’। এটি পরিচালনা করেছেন শ্রাবণী ফেরদৌস। মেহজাবিন ছাড়াও এতে অভিনয় করেছেন মনির খান শিমুল, আবির মির্জা প্রমুখ। গেল নারী দিবসে আরটিভিতে নাটকটি প্রচারিত হয়।

নাটকটি প্রচারের আগে গল্প লেখার বিষয়ে মেহজাবিন বলেছিলেন, এটাই আমার লেখা প্রথম নাটক। নিজের সচেতনতার ভাবনাটাকে গুরুত্ব দিয়ে এটা লিখেছি। আমাদের পারিপার্শ্বিক অবস্থা, চলাফেরা থেকে অনেক গল্প খুঁজে পাওয়া যায়। সামনে যদি সেরকম সুযোগ হয় তাহলে মাঝেমাঝেই লেখার চেষ্টা করবো।

বিজ্ঞাপনের মডেল হিসেবে বেশ জনপ্রিয় মেহজাবিন। ‘বাংলা লিংক’, ‘সেভেন আপ’, ‘ভাটিকা’, ‘ম্যাগি’, ‘ওমেরা এলপিজি গ্যাস’, ‘ড্যানিস টি’, ‘প্রাণ চুইংগাম’, ‘গ্ল্যাক্সোজ-ডি’, ‘উজালা পেইন্টস’ ও ‘আয়ুস’র বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে মুগ্ধতা ছড়িয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি মুম্বাইয়ের নির্মাতা প্রশান্ত মাদানের নির্দেশনায় সু ব্র্যান্ড বাটার বিজ্ঞাপনে অভিনয় করেছেন মেহজািবন। বিজ্ঞাপনচিত্রটি নিয়ে কয়েকদিন আগে মেহজাবিন বলেন, আমি এই ব্র্যান্ডের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে নিযুক্ত আছি। আগামী ১ বছর বাটা’র প্রমোশনাল সকল কাজে অংশ নেবো। এরমধ্যে এই ব্র্যান্ডের প্রোডাক্টের বিজ্ঞাপনে মডেল হয়েছি। বিজ্ঞাপনের টিমটা ভালো ছিলো। ভালো লেগেছে কাজটি করে।

নাচেও বেশ সরব মেহজাবিন। বিভিন্ন টেলিভিশন ও কর্পোরেট অনুষ্ঠানে নাচ করেন তিনি। এক কথায় বলতে গেলে মেহজাবিন সর্বগুণে গুণান্বিত। যার তুলনা তিনি নিজেই। কিন্তু দীর্ঘদিন ছোটপদার্য় সফলতার সঙ্গে অভিনয় করলেও চলচ্চিত্রে দেখা নেই মেহজাবিনের। সুদশর্না এই অভিনেত্রীকে চলচ্চিত্রে দেখার জন্য অধীর আগ্রহে রয়েছেন তার ভক্তরা। হয়তো, শিগগিরই ভক্তদের আশা জাগানিয়া খবর দেবেন এই অভিনেত্রী। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এনএ