Alexa বরের বিলম্বে প্রতিবেশীর গলায় মালা পরালেন কনে 

ঢাকা, সোমবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২০,   মাঘ ১৪ ১৪২৬,   ০২ জমাদিউস সানি ১৪৪১

Akash

বরের বিলম্বে প্রতিবেশীর গলায় মালা পরালেন কনে 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:৪৭ ৮ ডিসেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৭:৫১ ৮ ডিসেম্বর ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

সকাল থেকেই বাড়িতে সাজ সাজ রব। বাড়ির একমাত্র মেয়ের বিয়ে বলে কথা। অন্যদিকে তৈরি বরপক্ষও। তারা অবশ্য ভেবেছিল বিয়ের মণ্ডপে ঠিক সময়ে পৌছে গেলে বুঝি নাক কাটা যাবে। এরপরই তারা বাজি পুড়িয়ে, মন খুলে নাচ করে যখন মেয়ের বাড়ি পৌঁছায় তখন সময় পেরিয়ে গেছে অনেকটাই।

যখন তারা মেয়ের বাড়িতে পৌঁছায় তখন পাত্রী বেঁকে বসে। যে পাত্রর সময়জ্ঞান নেই তাকে বিয়ে করার কোনো কারণ সে দেখে না।

এরপর মেয়ের বাড়ির লেকজন পাত্রপক্ষকে একটি ঘরে আটকে রেখে বেদম মারধোর করে। আর সেই সুযোগে পাশের বাড়ির অন্য একটি ছেলের সঙ্গে মেয়ের বিয়ে দিয়ে দেয়। ঘটনাস্থল ভারতের উত্তরপ্রদেশ।

পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনার প্রায় দেড় মাস আগে এক গণবিবাহের অনুষ্ঠানেই চারহাত এক হয় তাদের। কিন্তু পাত্রপক্ষ ক্রমাগত আনুষ্ঠানিক বিবাহের দাবি জানায়। কারণ, পুরোপুরি নিয়ম মেনে বিয়ে না হলে তারা নতুন বউকে বাড়ি নিয়ে যেতে পারবে না।

সেই সঙ্গে পণের জন্যও একাধিক দাবি ছিল। গাড়ি, টাকা, গয়নাসহ একাধিক দাবি ছিল। বিয়ের সময়মতো তাদের মেয়ের বাড়িতে পৌঁছনোর কথা ছিল দুপুর ২ টায়। কিন্তু তারা পৌঁছায় রাত ১০টায়।

জেরায় অবশ্য পাত্রপক্ষ জানিয়েছে পাওনা নিয়ে মনকষাকষির জেরেই তারা এত দেরি করে এসেছে। মাঝরাতে পুলিশ এসে পাত্রপক্ষকে উদ্ধার করে। তারা অভিযোগ জানিয়েছে, মেয়ের বাড়ির তরফে তাদের সব গয়না কেড়ে নেয়া হয়েছে।

দুই পক্ষর কোনো লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি। তবে বাকি গ্রামবাসীরা এখন পণের বিপক্ষেই সওয়াল করছে। পাশের বাড়ির যুবকের বাড়িতেই বিয়ের পর গিয়ে উঠেছে ওই তরুণী।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমএইচ