ফায়ার স্টেশন নির্মাণে দুর্নীতির প্রমাণ ডিসির হাতে!

ঢাকা, শুক্রবার   ০৩ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২০ ১৪২৬,   ০৯ শা'বান ১৪৪১

Akash

ফায়ার স্টেশন নির্মাণে দুর্নীতির প্রমাণ ডিসির হাতে!

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি   ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৪৭ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলায় ফায়ার সার্ভিস স্টেশন নির্মাণে অনিয়ম-দুর্নীতির প্রমাণ পেয়েছে তদন্ত কমিটি। স্টেশনটি নির্মাণের আগেই উদ্বোধন করার বিষয়টি সঠিক হয়নি বলে মন্তব্য করেছেন তদন্ত কমিটির কর্মকর্তারা।

প্রায় দুই কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত শাল্লা ফায়ার সার্ভিস স্টেশন নির্মাণে অনিয়ম-দুর্নীতির সংবাদ গত বছরের নভেম্বর মাসে গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলে বিষয়টি তদন্তের জন্য ডিসির উদ্যোগে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি করা হয়। কমিটির প্রধান করা হয় স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক এডিসি এমরান হোসেনকে। 

তদন্ত কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, নির্বাহী প্রকৌশলী জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগ, ইউএনও, শাল্লা, উপজেলা প্রকৌশলী, শাল্লা এবং পিআইও শাল্লাকে। এই কমিটি তদন্ত শেষে ফায়ার সার্ভিস স্টেশন নির্মাণে অনিয়মের তথ্য তুলে ধরে। 

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, এই কমিটির রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়, ঠিকাদার ও কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণে শাল্লা ফায়ার সার্ভিস স্টেশন নির্মাণে বিলম্ব হচ্ছে। এই ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ৪০ ভাগ নির্মাণ হবার পর ৮০ ভাগ বিল ঠিকাদারকে প্রদান করা হয়। স্টেশনটির নির্মাণ কাজ শেষ হবার আগেই কাজ শেষ হয়েছে দাবি করে ২০১৮ সালের নভেম্বর মাসে এর উদ্বোধন করা হয়।

উল্লেখ্য, প্রায় দুই কোটি টাকা ব্যয়ে সুনামগঞ্জের শাল্লা ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের কাজ ২০১৬ সালে শুরু হয়ে ২০১৮ সালে শেষ হবার কথা থাকলেও এখনো অনেক কাজ বাকি রয়েছে। 

এ বিষয়ে তদন্ত কমিটির প্রধান স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক মো. এমরান হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এরমধ্যে তদন্ত রিপোর্ট ডিসির কাছে জমা দেয়া হয়েছে। 

অনিয়ম-দুর্নীতির সঙ্গে কারা জড়িত বা কোনো প্রমাণ মিলেছে কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, তদন্তের স্বার্থে এই মুহূর্তে কিছু বলা যাচ্ছে না। বিস্তারিত পরে জানানো হবে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম