খনন করা হচ্ছে কেন্টের রোমান অ্যাম্ফিথিয়েটার

ঢাকা, শনিবার   ০৪ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২১ ১৪২৬,   ১০ শা'বান ১৪৪১

Akash

খনন করা হচ্ছে কেন্টের রোমান অ্যাম্ফিথিয়েটার

ফিচার ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:২৮ ১১ মার্চ ২০২০  

ছবি: রোমান অ্যাম্পিথিয়েটার

ছবি: রোমান অ্যাম্পিথিয়েটার

প্রত্নতাত্ত্বিকরা ইংল্যান্ডের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রাচীন রোমান অ্যামফিথিয়েটার খননের কাজ শুরু করছেন। তারা আশা করছেন এবার কেন্টের রোমান অ্যাম্ফিথিয়েটারের রহস্য সফলভাবেই উদঘাটন করতে পারবেন।

বিনোদন এবং দর্শনীয় স্থান হিসেবে এটি একবার বন্য প্রাণী শিকার, মৃত্যুদণ্ড এবং গ্ল্যাডিয়েটারিয়াল যুদ্ধের আয়োজন করেছিল। তবে এর উৎপত্তি এখনো একটি রহস্য হিসেবে রয়ে গেছে এবং ঐতিহ্যমন্ডিত স্থানটি খনন করা হলে কবে, কখন তৈরি হয়েছিল, কিসের আদলে তৈরি, কীভাবে ব্যবহৃত হয়েছিল এবং রোমীয়রা যখন এটি ত্যাগ করেছিল তখন কী ঘটেছিল সব রহস্য উদঘাটন সম্ভব হবে। তবে খালি চোখে পুরো জমিটিকে একটি পতিত জমি বলে মনে হয়।

ইংলিশ হেরিটেজের সিনিয়র প্রপার্টি ইতিহাসবিদ পল প্যাটিসন বলেন, এটি ধ্বংসাবশেষ হলেও আগের খননগুলো থেকে প্রাপ্ত চিত্তাকর্ষক ধ্বংসাবশেষগুলো ছিল সমৃদ্ধ। যা ইংল্যান্ডের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ রোমান ঐতিহাসিক এবং প্রত্নতাত্ত্বিক স্থান হিসেবে চিহ্নিত এবং রিচবারোর বসতির অস্তিত্ব জানান দেয়।

তিনি আরো বলেন, এখনো অ্যাম্পিথিয়েটারের গোপন বিষয়গুলো এর পৃষ্ঠের নীচেই লুকিয়ে রয়েছে। এই খনক চলাকালীন আমরা বেশ কয়েকটি প্রশ্নের উত্তর পাবো বলে আশা করছি। এছাড়াও রোমানদের রেখে যাওয়া চিহ্নগুলো বিশ্লেষণ করার এবং এর রহস্য উন্মোচনের ভালো সুযোগ এটি।

৫০ একরের উপর নির্মিত অ্যাম্পিথিয়েটারটি রোমানের অবশেষের অঞ্চল থেকে দূরে অবস্থিত। রোমান ব্রিটেনের ইতিহাস অনুযায়ী রিচবারোর রোমান দুর্গটি রোমান রাজত্বের শেষ পর্যন্ত ব্যবহার করা হয়। ভিক্টোরিয়ার খননকালে অ্যাম্ফিথিয়েটারে খনিত একটি কঙ্কাল প্রকাশিত হয়েছিল। যা রোমান আমলের পরে এটি কবরস্থান হওয়ার সম্ভাবনাকে বাড়িয়ে তুলেছিল। 

অ্যাম্পিথিয়েটারের খনন মার্চের শেষের দিকে শুরু হবে এবং ২০২১ সালের বসন্তে জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস