Alexa শীতে বাজারে কাঁচা আম, দাম ৪০০-৪৫০ টাকা

ঢাকা, বুধবার   ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০,   ফাল্গুন ৬ ১৪২৬,   ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪১

Akash

শীতে বাজারে কাঁচা আম, দাম ৪০০-৪৫০ টাকা

টেকনাফ(কক্সবাজার) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০১:৪৩ ২৯ জানুয়ারি ২০২০  

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

কক্সবাজারের টেকনাফে বিভিন্ন হাট বাজারে মৌসুমের আগেই কাঁচা আম ৪০০টাকা থেকে ৪৫০টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। অবিশ্বাস্য হলেও এ কনকনে শীতের মধ্যে বাজারে বিক্রি হচ্ছে এখন কাঁচা আম।

গত সপ্তাহে টেকনাফ উপজেলার হাবিরছড়া এলাকার আব্দুল গফুর ও আব্দুস সামাদের আগাম জাতের আম বাগান  পরিদর্শন করেন চট্রগ্রাম পাহাড়তলী কৃষি গবেষণাগারের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. হারুন রশিদ, বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা কামরুল হাসান। তাদের মতে, এটি আবহাওয়ার কারণে হতে পারে। এ নিয়ে আরো গবেষণা করা হবে।

টেকনাফ পৌরসভার বাসস্টেশন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, রাস্তার পাশে ফুটপাতে বসে বিভিন্ন ধরনের মৌসুমী ফল বিক্রি করছেন বিক্রেতারা। তার মধ্যে ক্রেতাদের নজর কাড়ছে কাঁচা আম। চড়া দামে বিক্রি হওয়ায় অনেকে ইচ্ছে থাকলেও আম কিনতে পারছেন না। আবার অনেকে দাম শুনে ফিরে যাচ্ছেন। 

কাঁচা আম ব্যবসায়ী মো. হাছান প্রকাশ লেডু বলেন, টেকনাফ সদর ইউপির দক্ষিণ লেঙ্গুরবিল গ্রামের মকতুল হোছনের এক ছেলের কাছ থেকে এসব আম সংগ্রহ করেছি। এক কেজিতে ৫ থেকে ৭টি পর্যন্ত হয়। প্রতি কেজি ৪০০ থেকে সাড়ে ৪শ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে।

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

ব্যবসায়ী ছৈয়দ করিম বলেন, প্রতিবছর উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম থেকে আমি আগাম ফল কিনে এনে বাজারে বিক্রি করি। চলতি বছরও আগাম আম এনে বিক্রি করছি। কেনা আমগুলো আকারে বড় হওয়ায় এখন প্রতি কেজি আম ৪০০-৫০০ টাকায় বিক্রি করতে পারছি। মৌসুমের প্রথম ফল কাঁচা আম বাজারে আসায় ক্রেতাদের প্রচুর চাহিদাও রয়েছে।

টেকনাফ উপজেলা উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা শফিউল আলম বলেন, পৌষ মাসের প্রথম দিকে উপজেলার অধিকাংশ আমগাছে মুকুল এসেছে। সাধারণত চৈত্র মাসের শেষের দিকে আম বাজারে আসার কথা থাকলেও অসময়ে বাজারে কাঁচা আম আসার খবরটি অবিশ্বাস্য হলেও সত্য। দেশীয় জাতের আম গাছ প্রায় বিলুপ্তির পথে। তাই আগাম জাতের এই গাছগুলো নিয়ে গবেষণা করতে চট্রগ্রাম পাহাড়তলী কৃষি গবেষণাগারের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. হারুন রশিদ, বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা কামরুল হাসান টেকনাফে আগাম জাতের বিভিন্ন আম বাগান পরিদর্শন করেছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ