চামড়ার ব্যাগের জন্য নৃশংসভাবে কুমির হত্যা 

ঢাকা, রোববার   ০৫ এপ্রিল ২০২০,   চৈত্র ২২ ১৪২৬,   ১১ শা'বান ১৪৪১

Akash

চামড়ার ব্যাগের জন্য নৃশংসভাবে কুমির হত্যা 

সোশ্যাল মিডিয়া ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:২৩ ২৬ জানুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৫:৩৬ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বিভিন্ন প্রাণীর চামড়াকে কেন্দ্র করে অনেক বড় শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। চামড়ার জন্য প্রাণী হত্যার ব্যাপারটি আগেও সমালোচিত হয়েছে। সম্প্রতি নৃশংসভাবে কুমির হত্যা করে চামড়া সংগ্রহের একটি ভিডিও পেটা এশিয়া পত্রিকায় একটি প্রতিবেদনে বিষয়টি তুলে ধরা হয়। এরপর থেকেই বিষয়টি আলোচনায় আসে।

ছবি: সংগৃহীত

ভিডিওতে দেখা গেছে, কেবল চামড়ার জন্য নৃশংসভাবে গণহারে মেরে ফেলা হচ্ছে কুমির। কুমিরের চামড়া ছাড়িয়ে নিয়ে ব্যাগ, মানিব্যাগ, বেল্ট ও জুতা বানানো হচ্ছে। 

ভিয়েতনামে লুইস ভুটন নামক একটি সংস্থা চামড়ার ব্যাগ তৈরি করে। তাদের একটি খামারে দেখা গেছে, হাজার হাজার কুমির রয়েছে। সেখান থেকে তিন মাসে অন্তত দেড় হাজার কুমির হত্যা করে চামড়ার ব্যাগ বানানো হয়।

ছবি: সংগৃহীত

অল্প আকারের একটি খামারের চৌবাচ্চায় অন্তত পাঁচ হাজার কুমির সেখানে রাখা হয়। ভিডিওতে দেখা যায়, কংক্রিটের তৈরি সেই চৌবাচ্চায় কুমিরগুলো গাদাগাদি করে আছে।

ছবি: সংগৃহীত

বন্যপ্রাণী অধিকারকর্মীরা বলছেন, সেখানে একেবারে নাজুক পরিবেশে খুবই খারাপ অবস্থার মধ্যে বড় হচ্ছে কুমিরগুলো। তারপর নৃশংসভাবে তাদের মেরে চামড়া ছাড়িয়ে নেয়া হচ্ছে।

জানা গেছে, ১৫ মাস পর্যন্ত তাদের এভাবে রাখা হয়। তবে, এরই মধ্যে একটু বড় আকারের কুমিরগুলো বেছে বেছে ধরে নিয়ে গিয়ে মেরে ফেলে চামড়া ছাড়ানো হয়।

কুমিরের চামড়া সংগ্রহের ভিডিও>>>

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস/