এইচএসসি পরীক্ষা করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিকের ১৫ দিন পর

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০২ জুন ২০২০,   জ্যৈষ্ঠ ১৯ ১৪২৭,   ০৯ শাওয়াল ১৪৪১

Beximco LPG Gas

এইচএসসি পরীক্ষা করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিকের ১৫ দিন পর

ফারুক রহমান ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:১৩ ১০ এপ্রিল ২০২০   আপডেট: ১৮:৪৪ ১০ এপ্রিল ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

করোনাভাইরাসের কারণে চলতি বছরের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা নিয়ে অনিশ্চয়তা সৃষ্টি হয়েছে। এপ্রিলের প্রথম দিনে এ পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও করোনা মোকাবিলায় তা স্থগিত করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তবে নতুন সূচি দিয়ে কবে নাগাদ এ পরীক্ষা শুরু হবে তা নিয়ে তৈরি হয়েছে অনিশ্চয়তা।

গত ২২ মার্চ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের করোনাভাইরাসের কারনে এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিতের বিষয়টি জানান। এছাড়া এপ্রিলের প্রথম দিকে পরীক্ষার নতুন সূচি জানানোর কথা থাকলেও করোনা পরিস্থিতির কারণে তা সম্ভব হচ্ছে না।

ফলে অনিশ্চয়তায় দিন পার করছে প্রায় ১২ লাখ পরীক্ষার্থীসহ তাদের অভিভাবকেরা।

আবু জাফর নামে এক শিক্ষার্থী নারায়ণগঞ্জের একটি কলেজ থেকে এ বছর এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নেবে। আবু জাফর ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, পরীক্ষার জন্য যখন শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম, করোনাভাইরাসের কারণে পরীক্ষা স্থগিতের বিষয়টি জানানো হলো। কবে থেকে এ পরীক্ষা শুরু হবে তা কেউ বলতে পারছে না। পরীক্ষার পরে আবার বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষা রয়েছে। বাড়িতেও সবাই এসব নিয়ে চিন্তায় আছে।

শিক্ষাবোর্ড সংশ্লিষ্টরা বলছেন, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার ১৫ দিন পরে এ বছরের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হতে পারে। পরীক্ষা শুরুর অন্তত দুই সপ্তাহ আগে এর নতুন সূচি জানিয়ে দেয়া হবে।

এদিকে করোনাভাইরাসের কারণে এ বছর অনুষ্ঠিত এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ নিয়েও অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে।

গত ২৭ ফেব্রুয়ারি এসএসসির তত্ত্বীয় এবং ৫ মার্চ ব্যবহারিক পরীক্ষা শেষ হয়। মে মাসের প্রথম দিকে ফল প্রকাশের কথা থাকলেও করোনাভাইরাসের কারণে তা নিয়ে অনিশ্চয়তার সৃষ্টি হয়েছে।

এ বিষয়ে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মু. জিয়াউল হক বলেন, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার অন্তত ১৫ দিন পর থেকে এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হতে পারে। আমাদের চেষ্টা আছে যথাসময়ে এসএসসির ফল প্রকাশের। তবে বেশি দিন অফিস বন্ধ থাকলে তা কষ্টকর হয়ে পড়বে।

এদিকে প্রতিবছর জুলাই মাসের শেষে অথবা আগস্টের প্রথম দিকে এইচএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়। এরপর শুরু হয় ভর্তিপ্রক্রিয়া। ফলের ওপর নির্ভর করেই দেশের সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা চলে।

এ বছর চার-পাঁচটি বিশ্ববিদ্যালয় বাদে অন্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ভর্তি পরীক্ষা গুচ্ছভিত্তিক হওয়ার কথা রয়েছে। কিন্তু এবার যথাসময়ে পরীক্ষা না হওয়ায় পিছিয়ে যেতে পারে এইচএসসির ফল প্রকাশ। একই সঙ্গে ভর্তির জন্য প্রস্তুতি নেয়ারও সুযোগ কম পাবে শিক্ষার্থীরা। তাই এ নিয়েও শিক্ষার্থীদের মধ্যে শঙ্কা তৈরি হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম