Alexa মায়ের বাড়তি মেদ কমায় ‘ব্রেস্ট ফিডিং’   

ঢাকা, সোমবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২০,   মাঘ ১৩ ১৪২৬,   ০১ জমাদিউস সানি ১৪৪১

Akash

মায়ের বাড়তি মেদ কমায় ‘ব্রেস্ট ফিডিং’   

কানিছ সুলতানা কেয়া ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৩০ ১৯ নভেম্বর ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

নবজাতকের জন্য মায়ের বুকের দুধের বিকল্প আর কিছুতেই নেই। এটি শিশুর মস্তিষ্ক বিকশিত থেকে শুরু করে সুস্বাস্থ্য গঠনে সহায়তা করে। এসব তথ্য ইতোমধ্যে সবাই কমবেশি জানি। তবে জানেন কি? ব্রেস্ট ফিডিং মায়েদের ওজন কমানোসহ আরো অনেক রোগের উপশম ঘটায়। 

সম্প্রতি আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশনে প্রকাশিত একটি পত্রিকায় উল্লেখ করেছে, যেসব মায়েরা শিশুদের ব্রেস্ট ফিড করান, তাদের যেকোনো ধরনের হৃদরোগের সম্ভাবনা অন্যদের থেকে প্রায় দশ শতাংশ কমে যায়। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণারত বৈজ্ঞানিক স্যান পিটারস এই বিষয়ে জানান, গর্ভধারনের শুরুতেই নারীর শরীরে বিপাক প্রক্রিয়ার পরিবর্তন ঘটতে থাকে। একইসঙ্গে শরীরে প্রচুর পরিমাণে ফ্যাট বা মেদ জমতে থাকে। যা গর্ভের মধ্যে শিশুকে বেড়ে উঠতে সাহায্য করে।

এছাড়াও সন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়ার পরে স্তন্যদান করলে মায়ের শরীরের অতিরিক্ত মেদ খুব সহজে গলে যায় এবং মা-কে সুস্থ হতে সাহায্য করে। এই গবেষণায় বিশেষভাবে সাহায্য নেয়া হয়েছে চায়না কাদুরি বায়োব্যাঙ্ক তথ্যের, যেখানে ২ লাখ ৮৯ হাজার ৫৭৩ জন চীনা নারীর মাতৃত্বকালীন জীবনযাপনের পুঙ্খানুপুঙ্খ তথ্যসম্ভার সংরক্ষণ করা হয়েছে।

এর আগে বিভিন্ন গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে, সন্তানদের ব্রেস্ট ফিড করালে মায়েদের অতিরিক্ত মেদ, কোলেস্টেরল কমে যায়। এছাড়াও ব্লাড প্রেসার এবং রক্তে শর্করার মাত্রা স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে।  

সম্প্রতি, এই গবেষণায় আশাবাদী অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এপিডেমিওলজি বিভাগের অধ্যাপক জেংমিং চেং জানিয়েছেন, এই ধরনের গবেষণার ফলে ব্রেস্ট ফিডিং-এর জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাবে। ফলে মা এবং সন্তান উভয়েরই উপকার হবে।

সূত্র: আইএএনএস 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস