অনলাইনে ভ্রমণ কর দেবেন যেভাবে

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৪ জুলাই ২০২০,   আষাঢ় ৩০ ১৪২৭,   ২২ জ্বিলকদ ১৪৪১

Beximco LPG Gas

অনলাইনে ভ্রমণ কর দেবেন যেভাবে

গ্রমণ ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৯:৪৬ ২৭ মে ২০২০  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

ভ্রমণ কর পরিশোধ নিয়ে আগে বেশ জটিলতায় পড়তে হতো। এখন ভ্রমণ কর পরিশোধ পদ্ধতি সহজ করা হয়েছে। মোবাইল ব্যাংকিং বা অনলাইনে ভ্রমণ কর পরিশোধ করার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ফলে বিদেশে ভ্রমণকারীরা সহজে কর পরিশোধ করতে পারবেন।

ভ্রমণ কর জমা নেয়া হয় সোনালী ব্যাংক ও জনতা ব্যাংকে। এ দুটি ব্যাংকের প্রায় সব শাখাই ইতিমধ্যে অনলাইনের আওতায় এসেছে। ফলে যে কোনো অনলাইন শাখা থেকে ভ্রমণ কর পরিশোধ করা যাবে। প্রাথমিকভাবে জল ও স্থলপথে ভ্রমণকারীরা অনলাইনে ভ্রমণ কর পরিশোধ করতে পারবেন। 

পর্যায়ক্রমে আকাশপথেও অনলাইনে ভ্রমণ কর পরিশোধের ব্যবস্থা করা হবে। আকাশপথে ভ্রমণের কর বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই বিমান টিকিটের সঙ্গে কেটে নেয়া হয়। ফলে এক্ষেত্রে কর পরিশোধে বাড়তি কোনো জটিলতায় পড়তে হয় না। তবে কেউ ইচ্ছে করলে বিমান টিকিটের বাইরে আলাদাভাবে ভ্রমণ কর পরিশোধ করতে পারেন।

ভ্রমণ কর আইন অনুযায়ী আকাশ, স্থল ও বিমানপথে কোনো দেশে ভ্রমণে গেলে নির্ধারিত হারে কর পরিশোধ করতে হয়।

আকাশপথে উত্তর আমেরিকা, দক্ষিণ আমেরিকা, ইউরোপ, আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ডসহ দূরপ্রাচ্যের দেশগুলো ভ্রমণের জন্য যাত্রীপ্রতি আড়াই হাজার টাকা, সার্কভুক্ত দেশগুলোয় ভ্রমণের জন্য ৮০০ টাকা কর দিতে হয়। অন্যান্য দেশ ভ্রমণের জন্য ১ হাজার ৮০০ টাকা করে কর দিতে হয়। স্থলপথে যে কোনো দেশ ভ্রমণের জন্য ৫০০ টাকা এবং জলপথে ভ্রমণে ৮০০ টাকা কর দিতে হয়। ৫ বছরের বেশি থেকে ১২ বছর বয়সী শিশুদের জন্য নির্ধারিত হারের অর্ধেক ভ্রমণ কর দিতে হয়। ৫ বছর বা তার কম বয়সী যাত্রী, ক্যান্সার আক্রান্ত রোগী, অন্ধ ব্যক্তি, বাংলাদেশি ও বিদেশি কূটনীতিক, তাদের পরিবার, বিমান ক্রু, বিমানকর্মী, হজ ও ওমরাহ যাত্রীদের ভ্রমণ কর দিতে হয় না। এর বাইরে অন্য ভ্রমণকারীদের এই কর দিতে হয়।

সোনালী ব্যাংকের যে কোনো অনলাইন শাখায় গিয়ে নির্ধারিত একটি হিসাবে ভ্রমণ করের টাকা জমা দেয়া যাবে। এর বিপরীতে ব্যাংকের দেয়া রসিদই ভ্রমণ কর পরিশোধের প্রামাণিক দলিল হিসেবে গণ্য হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে