‘স্পিন যুবরাজ’ মুজিব আফগানিস্তানের উদীয়মান তারকা

ঢাকা, রোববার   ২৮ নভেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ১৫ ১৪২৮,   ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

টি-২০ বিশ্বকাপ, ২০২১

‘স্পিন যুবরাজ’ মুজিব আফগানিস্তানের উদীয়মান তারকা

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:৩০ ২৬ অক্টোবর ২০২১   আপডেট: ২১:৫০ ২৬ অক্টোবর ২০২১

মুজিব উর রহমান

মুজিব উর রহমান

আফগানিস্তানের আসল স্পিন রাজা হিসেবে নিজের অবস্থান ধরে রেখেছেন রশিদ খান। তবে উদীয়মান তারকা হিসেবে তার ছায়া থেকে বেরিয়ে এসেছেন মুজিব উর রহমান। যার প্রমাণ তিনি দিয়েছেন টি-২০ বিশ্বকাপে অসাধারণ দক্ষতা দেখিয়ে।

২০ বছর বয়সি এই স্পিনারের রহস্যময় স্পিনের সামনে সোমবার প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরা চরমভাবে ব্যর্থ হয়েছেন। শারজায় অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে তিনি মাত্র ২০ রানে ৫ উইকেট তুলে নিলে ৬০ রানেই থেমে যায় স্কটিশ ইনিংস।

মুজিব সমান দক্ষতায় করতে পারেন অফ স্পিন, লেগ স্পিন ও গুগলি। যার মাধ্যমে ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ভার্সনে এ পর্যন্ত ২০ টি ম্যাচে ৩০ উইকেট নিয়েছেন ২০১৮ সালে মাত্র ১৬ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হওয়া আফগান স্পিনার।

আফগান নাগরিকদের সমর্থন চেয়ে প্রথমবারের মত টি-২০ বিশ্বকাপে অংশ নেয়া মুজিব বলেন, বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হওয়ায় আমার দেশ আফগানিস্তানবাসীকে অভিনন্দন জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, জনগন প্রবল সমর্থন আমাকে ইতিবাচক শক্তি যুগিয়েছে। ভক্তরা আমাদেরকে দারুণ ভাবে সমর্থন দিয়েছে, যা আমাদের ভাল খেলার অন্যতম কারণগুলোর একটি।

ক্ষমতা দখল করা তালেবানরা নারীদের খেলার উপর বিধিনিষেধ আরোপ করায় বিশ্বকাপে সম্ভাব্য নিষিদ্ধ হবার মত কঠিন পরিস্থিতি অতিক্রম করে বিশ্বকাপে অংশ নিচ্ছে আফগানিস্তান ক্রিকেট দল। তারপরও বিশ্বকাপ খেলার প্রতি গভীর মনোযোগ থেকে সরে আসেনি খেলোয়াড়রা, অধিনায়ক মোহাম্মদ নবী বলেছেন তারা ‘ভালোভাবেই প্রস্তুত’।

সহিংস অঞ্চল খোস্ত শহরের একটি সাধারণ পরিবার থেকে উঠে আসা মুজিব একাই ধ্বসিয়ে দেন প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ডের টপ ও মিডল অর্ডারকে। প্রথম ওভারেই তিনি তুলে নেন তিন উইকেট।     

সপ্তম ওভারে এসে আক্রমনের দায়িত্ব কাধে তুলে নেন সিনিয়র স্পিনার রশিদ। তার আগে মুজিবের স্পিন ছোবলে ৩৭ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে বসে স্কটল্যান্ড। ওই সময় মুজিব তিন ওভার বল করে ১৪ রানে ৪ উইকেট দখল করেন। রশিদ তুলে নেন চারটি উইকেট। ফলে দুই স্পিনারের নামের পাশে জমা পড়ে নয়টি মুল্যবান উইকেট।

অধিনায়ক নবী বলেন, বিশ্ববাসী জানে আমাদের দলে রশিদ ও মুজিবের মতো ভালো স্পিনার আছে। 

মুজিব একটি ‘পরিপূর্ণ প্যাকেজ’ বলে উল্লেখ করেছেন আফগানিস্তানের সাবেক কোচ অ্যান্ডি মুলস। অনুর্ধ-১৯ দলের মঞ্চেও নিজের দক্ষতার প্রমান দিয়ে এসেছেন এই তরুণ তারকা। 

মুজিবের নেয়া ৫ উইকেটে ভর করে ফাইনালে পাকিস্তানকে হারিয়ে অনূর্ধ্ব -১৯ এশিয়া কাপের শিরোপা জয় করেছিল আফগানিস্তান। টুর্নামেন্টে ৫ ম্যাচে ২০ উইকেট শিকার করেছিলেন মুজিব। কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের হয়ে প্রথম ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন মুজিব। ২০১৮ আসরের জন্য ৬ লাখ ৩০ হাজার মার্কিন ডলারের বিনিময়ে তাকে দলে ভিড়িয়েছিল বর্তমানে পাঞ্জাব কিংস ফ্র্যাঞ্চাইজি।   

২০১৮ সালে আফগানিস্তানের হয়ে ভারতের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন মুজিব।  ২০১৮ সালের জুনের ম্যাচটিই ছিল তার প্রথম শ্রেনীর ক্রিকেটে অভিষেক। একই বছর তাকে দলভুক্ত করে ইংলিশ কাউন্টি হ্যাম্পশায়ার। সেখানে তার সতীর্থ হিসেবে ছিলেন নিউজিল্যান্ডের কলিন মুনরো।

কিউই ওই ক্রিকেটার বলেন, মুজিব, এক যাদুকর। এই খেলার সব কুটকৌশল তার জানা।’ সম্প্রতি নর্দার্ন সুপার চার্জারের হয়ে ইংল্যান্ডের হান্ড্রেড বল ক্রিকেটেও অংশ নিয়েছেন মুজিব। কোন এক সময় তিনি বলেছিলেন, তার কাছে সবচেয়ে বড় উইকেটটির নাম ভারতের বিরাট কোহলি।

সবে মাত্র ক্যারিয়ারের শুরু। ‘স্পিন যুবরাজকে’ নিয়ে আরো অনেক স্মরনীয় মুহুর্তের জন্য গভীর আশা নিয়ে অপেক্ষা করছে আফগানিস্তান।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস/এএল