৫৪০ দিন পর খুললো ঢাবির প্রবেশ গেট 

ঢাকা, শনিবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ৪ ১৪২৮,   ০৯ সফর ১৪৪৩

৫৪০ দিন পর খুললো ঢাবির প্রবেশ গেট 

ঢাবি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৩৬ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৫:০৭ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১

বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তি ও গণতন্ত্র তোরণের গেইট খুলে দেয়া হয়েছে। 

বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তি ও গণতন্ত্র তোরণের গেইট খুলে দেয়া হয়েছে। 

প্রায় ৫৪০ দিন পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রবেশের বেরিগেড খুলে দেয়া হয়েছে। বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) সকালে ঢাবি কর্তৃপক্ষ নীলক্ষেত থেকে ক্যাম্পাসে প্রবেশের একমাত্র প্রবেশপথ ‘মুক্তি ও গণতন্ত্র তোরণে’র বেরিগেড তুলে নেয়। এরফলে যান চলাচল শুরু হয়েছে এই পথ ধরে। 

সম্প্রতি প্রভোস্ট কমিটি ও ডিনস কমিটির নেয়া সিদ্ধান্ত অনুযায়ী স্নাতক চতুর্থ বর্ষ ও স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থীদের জন্য আগামী ১৫ সেপ্টেম্বরের পর আবাসিক হল খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। 

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, অক্টোবর থেকে ওই দুই বর্ষের শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হবে। এসব সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে দুটি বিষয় বিবেচনায় থাকবে। একটি হলো শিক্ষার্থীদের টিকা নেয়া, আরেকটি করোনা পরিস্থিতি। করোনা পরিস্থিতির অবনতি হলে ভিন্ন কথা। বর্তমানে যে পরিস্থিতি বিরাজ করছে, তার আলোকে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। জাতীয়ভাবে অন্য কোনো সিদ্ধান্ত হলে তা অনুসরণ করা হবে। 

ক্যাম্পাসে এই সময়ে ‘সোস্যাল আইসোলেসন নীতি’ অনুযায়ী বন্ধ রাখা হয়েছিল বলে জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী। এই সময়ে আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরের মানুষের প্রবেশ কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেছি। ঢাবির লোগো লাগনো গাড়ি ছাড়া অন্যান্য গাড়ি যথাসাধ্য নিয়ন্ত্রণে রাখার চেষ্টা করেছি। 

শিক্ষার্থীরা বলছেন, করোনার সময় দীর্ঘ বন্ধের পর বিশ্ববিদ্যালয়ের এই গেট খুলে দেয়া হয়েছে৷ এতে আমরা ক্যাম্পাস খোলার আভাস পাচ্ছি। দীর্ঘদিন পর এই গেট খোলা দেখে ভালো লাগা কাজ করছে। আর অন্যদিকে অবাধ যানচলাচলেরও একটি সমস্যা তৈরি হবে। আমরা চাই বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যাতে যানচলাচলে কিছুটা নিয়ন্ত্রণে রাখে। বড় ও ভারি যান যাতে বিশ্ববিদ্যালয় দিয়ে প্রবেশ না করে সেদিক বিবেচনায় তদারকি করা। 

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী বলেন, আমরা আজকে সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তি ও গণতন্ত্র তোরণের আটকানো গেইট খুলে দেয়া হয়েছে। 

ক্যাম্পাস খোলার বিষয়ে তিনি বলেন, ইউজিসির সঙ্গে আমাদের মিটিং হয়েছে। আজ (বুধবার) সন্ধ্যায় প্রভোস্ট স্ট্যান্ডিং কমিটির মিটিংয়ে বসবো। সেখানে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার বিষয়ে আলোচনা হবে। তবে আমরা শিগগিরই বিশ্ববিদ্যালয়ের হল ও একাডেমিক কার্যক্রম শুরুর লক্ষ্যে সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম