করোনার টিকা নিতে চান মোখলেছ, নিজেকে জীবিত প্রমাণে দফতরে দফতরে ধরন

ঢাকা, সোমবার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ৫ ১৪২৮,   ১১ সফর ১৪৪৩

করোনার টিকা নিতে চান মোখলেছ, নিজেকে জীবিত প্রমাণে দফতরে দফতরে ধরনা

জামালপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০১:০৭ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১  

ভুক্তভোগী মোখলেছের জাতীয় পরিচয়পত্র

ভুক্তভোগী মোখলেছের জাতীয় পরিচয়পত্র

জামালপুরের মাদারগঞ্জের মোখলেছ করোনার টিকা নিতে চান। কিন্ত ভোটার তালিকায় জীবিত মোখলেছকে মৃত দেখানোর কারণে তিনি পড়েছেন মহাবিপাকে। সরকারি বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা,  ব্যাংকঋণ, করোনার টিকাসহ অন্যান্য নাগরিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। ২০১৭ সালে ভোটার তালিকা হাল নাগাদে মাঠ পর্যায়ে তথ্য সংগ্রহের সময় এমন হতে পারে বলছেন নির্বাচন কর্মকর্তা।

জানা গেছে, ভোটার তালিকায় মৃত মো. মোখলেছ মাদারগঞ্জ পৌরসভার চরগাবেরগ্রাম এলাকার মৃত মুনছুর প্রামানিকের ছেলে। পেশায় তিনি রাজমিস্ত্রী। জন্ম : ২ মার্চ ১৯৮২ সালে। এনআইডি নং : ৩৯২৫৮০১৩১৭৮০২।

এদিকে নিজেকে জীবিত প্রমাণ করতে, দফতরে দফতরে ধরনা দিচ্ছেন মোখলেছ।  করোনা টিকার নিবন্ধন করতে গেলে তা নেয়নি কম্পিউটার সিস্টেম। পরে নির্বাচন কমিশনে গিয়ে জানতে পারেন, মৃত দেখিয়ে তার নাম ৫ বছর আগে সার্ভার থেকে মুছে দেওয়া হয়েছে।

মো. মোখলেছ বলেন, আমি জানতাম না ভোটার তালিকা থেকে আমার নাম কাটা হয়েছে। করোনার টিকা নিবন্ধনের জন্য অনলাইনে আবেদন করার চেষ্টা করি। কিন্তু বারবার চেষ্টা করেও দেখা যায়, অনলাইনে আবেদন নিচ্ছে না। পরে নির্বাচন অফিসে গিয়ে জানতে পারি, ভোটার তালিকা থেকে আমার নাম কাটা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমি এখনো জীবিত আছি। তবু ভোটার তালিকায় মৃত দেখানো হয়েছে। ভোটার তালিকায় মৃত থাকায় মিলছে না সরকারি কোনো সুযোগ-সুবিধা। পাচ্ছি না করোনা টিকাসহ অন্যান্য সুবিধা। নির্বাচন অফিসে ভোটার তালিকায় জীবিত হতে আবেদন দিয়েছি। জানি না এমন সমস্যার সমাধান মিলবে কবে?

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জামান হোসেন চৌধুরী জানান, এ ব্যাপারে একটি লিখিত আবেদন পেয়েছি। নতুন করে ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্তির জন্য আবেদন পাঠানো হয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যেই এ সমস্যার সমাধান হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ