নিজের রেকর্ড ভেঙ্গে সোনা জিতলেন ড্রেসেল

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ১৪ ১৪২৮,   ১৯ সফর ১৪৪৩

টোকিও অলিম্পিক-২০২০

নিজের রেকর্ড ভেঙ্গে সোনা জিতলেন ড্রেসেল

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৩১ ৩১ জুলাই ২০২১  

যুক্তরাষ্ট্রের তারকা সাঁতারু সেলেব ড্রেসেল

যুক্তরাষ্ট্রের তারকা সাঁতারু সেলেব ড্রেসেল

নিজের বিশ্বরেকর্ড ভেঙ্গে টোকিও অলিম্পিকের সাঁতার ইভেন্টের পুরুষদের ১০০ মিটার বাটাইফ্লাইয়ে সোনার পদক জয় করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের তারকা সাঁতারু সেলেব ড্রেসেল। 

২০১৯ সালের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশীপে ৪৯.৫০ সেকেন্ড সময় নিয়ে বিশ্ব রেকর্ড গড়া ড্রেসেল এবার নিজের রেকর্ডই ভঙ্গ করে ক্যারিয়ার সেরা টাইমিং ৪৯.৪৫ সেকেন্ড সময় নিয়ে টোকিও অলিম্পিকে প্রথম হয়েছেন।

এই ইভেন্টে দ্বিতীয় হয়েছেন হাঙ্গেরিয়ান ২০০ মিটার ফ্লাই বিজয়ী ক্রিস্টফ মিলাক। তার টাইমিং ছিল ৪৯.৫৮ সেকেন্ড। সুইজারল্যান্ডের নো পোন্তি ৫০.৭৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ পদক জয় করেছেন।

এনিয়ে এবারের গেমসে তৃতীয় স্বর্ণ জয় করলেন ড্রেসেল। এর আগে ১০০ মিটার ফ্রিস্টাইল ও ৪১০০ মিটার ফ্রিস্টাইল রিলেতে যুক্তরাষ্ট্রকে সোনা উপহার দিয়েছেন ৬ ফিট ৩ ইঞ্চি উচ্চতার ২৪ বছর বয়সী এই মার্কিন সাঁতারু।

সোনা জয় করার পর উচ্ছ্বসিত ড্রেসেল বলেছেন, অলিম্পিক পদকটি জিততে বিশ্ব রেকর্ড লাগল। মনে হয় না, অলিম্পিকে এমনটা প্রায়ই ঘটে। আমার পরিকল্পনা ছিল দ্রুত সাঁতার শুরু করা এবং এরপর গতি ধরে রাখা।

নিজের সবটুকু নিংড়ে দিয়ে রুপা পেলেও হতাশ নন মিলাক। তার কাছে এটাই ন্যায্য ফল। ‘এটা ন্যায্য ফল সর্বোচ্চ এইটুকুই আমি দিতে পারতাম। আমাকে হারাতে কেলেবকে বিশ্বরেকর্ড গড়তে হয়েছে, এই জন্য আমি খুশি। সবকিছু হয়ে যায়। বিশ্ব রেকর্ড গড়ে আমি প্রথম হয়েছি এটাই বিশেষ কিছু’।

এই ইভেন্টের হিটেও তৃতীয় দ্রুততম সময় নিয়ে নিজেকে প্রমান করেছিলেন ড্রেসেল। তার বিশ্ব রেকর্ডের কাছাকাছি এবারের আসরে কেউই ছিলেন না। টোকিওর পুলে এনিয়ে চতুর্থ বিশ্ব রেকর্ড হলো। 

এরপরপরই অবশ্য ৪১০০ মিটার মিডলেতে বৃটেনের পুরুষ দল বিশ্ব রেকর্ড গড়ে স্বর্ণ জয় করেছে।

ব্যক্তিগত ইভেন্টে এবারের আসরে দক্ষিণ আফ্রিকার তাতানা শুমেকারের ২০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে বিশ্ব রেকর্ড গড়ার পর দ্বিতীয় সাঁতারু হিসেবে ড্রেসেল রেকর্ড গড়েছেন।

আগামীকাল রোববার ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইল ও ৪১০০ মিটার মিডলে রিলেতে ড্রেসেলের সোনা জয়ের সম্ভাবনা রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস