দুইশতম ম্যাচের রেকর্ড গড়লেন পঞ্চপান্ডবের পঞ্চম সদস্য

ঢাকা, রোববার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ৪ ১৪২৮,   ১০ সফর ১৪৪৩

দুইশতম ম্যাচের রেকর্ড গড়লেন পঞ্চপান্ডবের পঞ্চম সদস্য

ক্রীড়া প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:৪১ ২০ জুলাই ২০২১  

টাইগার অলরাউন্ডার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ   -ফাইল ফটো

টাইগার অলরাউন্ডার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ -ফাইল ফটো

সিরিজের তৃতীয় এবং শেষ ওয়ানডে ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করছে বাংলাদেশ দল। বরাবরেই মতো এ ম্যাচে দলের হয়ে মাঠে নেমেছেন টাইগার অলরাউন্ডার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। আর এর মাধ্যমেই পঞ্চম বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে ওয়ানডেতে দুইশ ম্যাচ খেলার কৃতি গড়লেন সাইলেন্ট কিলার খ্যাত এই বাংলাদেশি ক্রিকেটার।

বাংলাদেশের পঞ্চম ও বিশ্বের ৮৫তম ক্রিকেটার হিসেবে ২০০ ওয়ানডের মাইলফলক স্পর্শ করলেন তিনি।

মাহমুদউল্লাহর আগে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে ২০০ ওয়ানডে খেলেছেন পঞ্চপান্ডবের বাকি চার সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল। পঞ্চপান্ডবের পঞ্চম ও শেষ সদস্য হিসেবে ২০০ ওয়ানডে খেলতে নামলেন মাহমুদউল্লাহ।

একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এখন পর্যন্ত খেলা ১৯৯ ম্যাচে ৩৪.৯১ গড়ে ৪৪৬৯ রান করেছেন মাহমুদউল্লাহ। ক্যারিয়ারে সেঞ্চুরি করেছেন তিনবার ও পঞ্চাশ পেরিয়েছেন আরো ২৫টি ম্যাচে। পাশাপাশি বল হাতে শিকার করেছেন ৭৬টি উইকেট।

ওয়ানডেতে মাহমুদউল্লাহর সবচেয়ে স্মরণীয় ইনিংস ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। সেদিন বিশ্বকাপে বাংলাদেশের পক্ষে প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে সেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি, দলও জিতেছিল ম্যাচ। তিনি নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পরের ম্যাচে খেলেন ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ ১২৮ রানের ইনিংস।

মাহমুদউল্লাহর তৃতীয় ও শেষ সেঞ্চুরিটি হয়তো বাংলাদেশের ইতিহাসেরই অন্যতম সেরা ইনিংস। যেদিন অনবদ্য সেঞ্চুরিতে দলকে জিতিয়েছিলেন সাইলেন্ট কিলার। ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে নিউজিল্যান্ডের করা ২৬৫ রানের জবাবে মাত্র ৩৩ রানেই ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলেছিল বাংলাদেশ।

সেখান থেকে সাকিব আল হাসানের সঙ্গে ২২৪ রানের পঞ্চম উইকেট জুটি গড়েন মাহমুদউল্লাহ। নিজে ১০২ রানে অপরাজিত থেকে দলকে এনে দেন অবিস্মরণীয় এক জয়। তবে পরের চার বছরে আর কোনো সেঞ্চুরি দেখা যায়নি মাহমুদউল্লাহর ব্যাটে।

এদিকে বাংলাদেশের আগের চার ক্রিকেটারের মধ্যে ২০০তম ওয়ানডেতে শুধুমাত্র মাশরাফীই পেয়েছেন জয়ের দেখা। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৫ উইকেটে হারানোর পথে মাত্র ৩০ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরার পুরস্কারও জিতেছিলেন মাশরাফী।

এর বাইরে মুশফিক, তামিম ও সাকিব- তিনজনকেই নিজেদের ২০০তম ওয়ানডেতে মাঠ ছাড়তে হয়েছে পরাজয়ের গ্লানি নিয়ে। ২০১৯ বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে সাকিব অবশ্য ব্যাটে-বলে পারফর্ম করেছিলেন। প্রথম ৬৮ বলে ৬৪ রানের ইনিংস, পরে ৪৭ রানে নেন ২ উইকেট। কিন্তু কিউইরা ম্যাচ জিতে নেয় ২ উইকেটের ব্যবধানে।

একই বিশ্বকাপে ভারতের কাছে ২৮ রানে হারা ম্যাচটি ছিল তামিমের ক্যারিয়ারের ২০০তম ওয়ানডে। সেদিন ৩১ বলে ২৪ রান করেন তামিম। সে বছরের শুরুতে নিউজিল্যান্ড সফরে ২০০তম ওয়ানডে খেলেন মুশফিক। স্বাগতিকদের কাছে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে হেরে যাওয়া ম্যাচে ২৪ রানের বেশি করতে পারেননি মি. ডিপেন্ডেবল।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস