ক্ষমা চাইলেন অ্যাগুয়েরো

ঢাকা, রোববার   ২০ জুন ২০২১,   আষাঢ় ৮ ১৪২৮,   ০৮ জ্বিলকদ ১৪৪২

ক্ষমা চাইলেন অ্যাগুয়েরো

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:১৯ ৯ মে ২০২১  

সার্জিও অ্যাগুয়েরো

সার্জিও অ্যাগুয়েরো

ম্যানচেস্টার সিটির ইতিহাসে সবচেয়ে গৌরুবের একটা মুহূর্তের অংশীদার সার্জিও অ্যাগুয়েরো। তার দেয়া শেষ মুহূর্তের গোলেই ২০১১-১২ মৌসুমে শিরোপা জিতেছিল দলটি। দলের ২০২০-২১ মৌসুমের শিরোপা নিশ্চিতের সুবর্ণ সুযোগও তিনি পেয়েছিলেন। কিন্তু হাস্যকর ভুলে আর গোল করতে পারেননি অ্যাগুয়েরো। দলও ম্যাচটি হেরেছে। যার জেরে ম্যাচ শেষে সবার কাছে ক্ষমা চেয়েছেন এই স্ট্রাইকার। 

চেলসির বিপক্ষে ম্যান সিটি তখন ১-০ গোলে এগিয়ে। বক্সের মধ্যে সিটির স্প্যানিশ উইঙ্গার ফেরান তোরেসকে ফেলে দেন চেলসির তরুণ ইংলিশ মিডফিল্ডার বিলি গিলমোর। ফলে পেনাল্টি পায় স্কাই ব্লুজরা। সেখানে গোলটা করতে পারলেই ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে যেত সিটিজেনরা। যার ফলে বলা যায় ম্যাচটা স্বাগতিকদের হাতের মুঠোয় চলে আসতো। 

পেনাল্টিটা নিতে গিয়েই ভজকট পাকিয়ে ফেলেন অ্যাগুয়েরো। সর্বশক্তি দিয়ে না মেরে চেলসির গোলরক্ষক এদুয়ার্দ মেন্দিকে বোকা বানাতে গেলেন তিনি। মারলেন ‘পানেনকা’ কিক। এ ধরনের কিকের গতিবেগ এমনিতেই কম থাকে। অ্যাগুয়েরোর শটে সেই গতি ছিল আরো কম। তাই ডান দিকে ঝাঁপ দিতে গিয়েও বলের বেগ দেখে একরকম হেসেখেলেই ‘ক্যাচ’ ধরেন সেনেগালিজ এই গোলরক্ষক। 

ম্যাচে সিটিজেনরা আর কোনো গোল করতে পারেনি। উল্টো চেলসির কাছে দুই গোল হজম করে ম্যাচই হেরে বসে তারা। ফলে সমর্থকদের চোখে অনেকটাই ভিলেন হয়ে যান সার্জিও অ্যাগুয়েরো। 

ম্যাচ শেষে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে একটি পোস্ট করেন অ্যাগুয়েরো। সেখানে তিনি স্বীকার করেছেন, ওভাবে পেনাল্টি নেয়ার সিদ্ধান্ততেই ভুল ছিল। এই স্ট্রাইকার লিখেছেন, ‘পেনাল্টি মিস করার জন্য আমার সতীর্থ, ক্লাব কর্মকর্তা ও সমর্থকদের কাছে ক্ষমা চাইছি। ওভাবে পেনাল্টি নেয়ার সিদ্ধান্তটা বাজে ছিল। আর এর পুরো দায়ভার আমি নিচ্ছি।’

সতীর্থের এমন পোস্টে পাশে দাঁড়িয়েছেন রহিম স্টার্লিং। সহমর্মিতা জানিয়ে তিনি লিখেছেন, ‘ব্যাপার না, বন্ধু। হারের জন্য আমরা সবাই দায়ী। কিন্তু আমরা আবারো নিজেদের ভুল শুধরে এগিয়ে যাব।’ এছাড়া কমেন্ট সেকশনে ম্যানসিটিও তাদের অফিশিয়াল অ্যাকাউন্ট থেকে ভালোবাসার ইমোজি পোস্ট করেছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল