ইস্তাম্বুলে নাও হতে পারে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনাল

ঢাকা, শুক্রবার   ১৮ জুন ২০২১,   আষাঢ় ৬ ১৪২৮,   ০৬ জ্বিলকদ ১৪৪২

ইস্তাম্বুলে নাও হতে পারে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনাল

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:০১ ৯ মে ২০২১  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

করোনাভাইরাসের কারণে যাতায়াতের বিধিনিষেধে তুরস্ককে রেড লিস্টে রাখার ঘোষণা দিয়েছে ব্রিটিশ সরকার। আর এ কারণেই শুক্রবার যুক্তরাজ্যের পক্ষ থেকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফুটবলের ফাইনালে ঘরের মাঠে আয়োজনের আগ্রহ প্রকাশ করা হযেছে। দেশটির ট্রান্সপোর্ট সেক্রেটারী গ্র্যান্ড শ্যাপস বলেছেন ফাইনাল ম্যাচটি আয়োজনে তার পুরোপুরি প্রস্তুত। আগামী ২৯ মে অল-ইংলিশ ফাইনালে ম্যানচেস্টার সিটির মোকাবেলা করবে চেলসি।

ইংলিশ ফুটবল এসোসিয়েশন এরই মধ্যে বিষয়টি নিযে ইউরোপিয়ান ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা উয়েফার সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছে বলে শ্যাপস জানিয়েছেন। কিন্তু একইসঙ্গে তিনি স্পষ্ট করেছেন ফাইনালের ভেন্যু চূড়ান্তের সিদ্ধান্ত উয়েফাই নিবে। তিনি আরো জানিয়েছেন চেলসি ও সিটি সমর্থকরা ইস্তাম্বুল সফর করতে পারবে না।

ডাউনিং স্ট্রিটের এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, অত্যন্ত হতাশার সাথে বলতে হচ্ছে তুরস্ককে আমরা রেড লিস্টে রেখেছি। আর এ কারণেই ফাইনালে যাওয়া নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে। সবচেয়ে প্রথমে আমরা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে সমর্থকদের যাতায়াতে নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি সামনে আনতে চাই। এর মধ্যেই বিষয়টি নিয়ে এফএ ও উয়েফা আলোচনা শুরু করেছে। আমরা ফাইনাল আয়োজনে প্রস্তুত আছি, কিন্তু চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত উয়েফাই নিবে।

তিনি আরো বলেন, অবশ্যই এই পরিস্থিতিতে সমর্থকদের উপস্থিতিতে ফুটবল ম্যাচ আয়োজনের রেকর্ড ইংল্যান্ডের রয়েছে। সে কারণে আমরা ফাইনাল আয়োজনের আগ্রহের কথা অকপটেই বলতে পারি। বিশেষ করে যেখানে দুটি ইংলিশ ক্লাব এবার ফাইনাল খেলছে, সে কারনেই আমরা ম্যাচটি আয়োজনের জন্য উয়েফার সিদ্ধান্তের জন্য মুখিয়ে আছি।

বিষয়টি অবগত হবার পর উয়েফার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে তারা এ ব্যপারে সিদ্ধান্ত নিতে আরো কিছু সময় চায়। করোনাভাইরাসের কারণে গত সপ্তাহে তৃতীয় দফায় তুরষ্ক যখন লক ডাউনের ঘোষণা দিয়েছিল তখন উয়েফা বলেছিল এটা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে কোন প্রভাব ফেলবে না।

সীমিত সংখ্যক দর্শকের উপস্থিতিতে তুরস্কের আতাতুর্ক অলিম্পিক স্টেডিয়ামে তারা এই ম্যাচটি আয়োজনের ব্যপারে আশাবাদী। ম্যাচটি নিরাপদে আয়োজনের ব্যপারে উয়েফা টার্কিশ ফুটবল ফেডারেশন ও স্থানীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করছে।

সাম্প্রতিক সময়ে তুরস্কে হঠাৎ করেই কোভিড আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। এর আগের দুই প্রবাহের তুলনায় এবার সেখানে দৈনিক প্রায় ৩৫০ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে। গত সপ্তাহে একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৭ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছিল। ইউরোপে যা এই সময়ে সর্বোচ্চ।

গত বছরও চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল আতাতুর্ক স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠানের কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত করোনা মহামারির কারণে তা বাতিল করে আগস্টে লিসবনে ‘ফাইনাল এইট’ অনুষ্ঠিত হয়।

সপ্তাহের শুরুতে সেমিফাইনালে পিএসজি ও রিয়াল মাদ্রিদকে হারিয়ে সিটি ও চেলসি এ বছরের ফাইনাল নিশ্চিত করেছে। এবারের আসরের এর আগের রাউন্ডেরও কিছু ম্যাচ করোনার কারণে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে আয়োজিত হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস/এএল