স্বাগতিক দর্শকের অনুমতি দিল প্রিমিয়ার লিগ

ঢাকা, শনিবার   ১২ জুন ২০২১,   জ্যৈষ্ঠ ২৯ ১৪২৮,   ০১ জ্বিলকদ ১৪৪২

স্বাগতিক দর্শকের অনুমতি দিল প্রিমিয়ার লিগ

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:২২ ৬ মে ২০২১  

প্রিমিয়ার লিগ

প্রিমিয়ার লিগ

চলতি মাসের শেষে মৌসুমের শেষ দুই রাউন্ডের জন্য শুধুমাত্র নিজ নিজ স্টেডিয়ামে সীমিত আকারে স্বাগতিক দর্শক প্রবেশের অনুমতি দিয়েছে প্রিমিয়াল লিগ কর্তৃপক্ষ। ব্রিটিশ সরকার সম্প্রতি লকডাউন শিথিল করায় প্রিমিয়ার লিগের পক্ষ থেকে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

লকডাউন সংক্রান্ত ব্রিটিশ সরকারের বিধিনিষেধ অনুযাযী আগামী ১৭ মে থেকে ধারণক্ষমতার ২৫ শতাংশ অর্থাৎ সর্বোচ্চ দশ হাজার সমর্থক মাঠে উপস্থিত হতে পারবে। যে কারণে প্রিমিয়ার লিগ কর্তৃপক্ষকে এখন ম্যাচের সূচীরও কিছুটা পরিবর্তন করতে হচ্ছে, যাতে করে শেষ রাউন্ডের আগে ২০টি দল অন্তত একটি করে ম্যাচ ঘরের মাঠে সমর্থকদের উপস্থিতিতে খেলতে পারে।

এর মধ্যেই যুক্তরাজ্য সরকার ৩৪ মিলিয়ন মানুষের মধ্যে করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ দেয়া সম্পন্ন করেছে। ডিসেম্বরে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা কমে যাওয়ায় কিছু কিছু এলাকায় পরীক্ষামূলক ভাবে সর্বোচ্চ চার হাজার দর্শকের অনুমতি মিলেছিল। কিন্তু তারপর আবারো সংক্রমন বেড়ে যাওয়ায় সেই সিদ্ধান্ত বাতিল করা হয়।

এক বিবৃতিতে দর্শক প্রবেশের বিষয়টি নিশ্চিত করে প্রিমিয়ার লিগ জানিয়েছে, ‘আগামী ১৮-১৯ মে লিগের ৩৭তম সপ্তাহে দর্শকরা মাঠে প্রবেশ করতে পারবে। একইসাথে ২৩ মে’শেষ রাউন্ডের ম্যাচেও এটি কার্যকর থাকবে’।

তবে এই সময়ে কোন ধরনের অ্যাওয়ে সমর্থক উপস্থিত হতে পারবেন না। যদিও ইংলিশ ক্লাবগুলো আশা করছে আগামী মৌসুমে পরিপূর্ণ স্টেডিয়াম নিয়েই প্রিমিয়ার লিগ আয়োজিত হবে। 

বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে,‘সমর্থকরা এর মধ্যেই প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচগুলো দারুণভাবে মিস করছে। আর এখনকার এই সিদ্ধান্ত পরিপূর্ণ স্টেডিয়ামের পথে অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি পদক্ষেপ’।

এর মধ্যেই ব্রিটেন জুড়ে বেশ কয়েকটি ইভেন্টে বেশ কয়েকবার পরীক্ষামূলক দর্শক প্রবেশের বিষয়টি কার্যকর করা হয়েছে। গত মাসে ওয়েম্বলিতে লিস্টার সিটি বনাম সাউদাম্পটনের এফএ কাপের সেমিফাইনালের ম্যাচে ৪ হাজার দর্শক মাঠে প্রবেশ করেছিল। গত ২৪ এপ্রিল ম্যানচেস্টার সিটির লিগ কাপ শিরোপা জয়ের ম্যাচটি মাঠে বসে উপভোগ করেছে আট হাজার দর্শক। আগামী ১৫ মে লিস্টার বনাম চেলসির মধ্যকার এফএ কাপের ফাইনালে উপস্থিত থাকতে পারবেন ২১ হাজার দর্শক।

আগামী জুনে ওয়েম্বলিতে অনুষ্ঠিতব্য ইউরো ২০২০’এর আটটি ম্যাচেও ২৫ শতাংশ দর্শক প্রবেশের অনুমতি মিলেছে। ৯০ হাজার ধারণক্ষমতা সম্পন্ন এই স্টেডিয়ামটিতে অনুষ্ঠিতব্য ইউরো ২০২০’র সেমিফাইনাল ও ফাইনালে ৫০ শতাংশ দর্শকের উপস্থিতির আশা করছে আয়োজকরা।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস