রাজশাহীর বিপক্ষে এবার জিততে মরিয়া ঢাকা

ঢাকা, রোববার   ২৪ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ১০ ১৪২৭,   ০৯ জমাদিউস সানি ১৪৪২

রাজশাহীর বিপক্ষে এবার জিততে মরিয়া ঢাকা

ক্রীড়া প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:২১ ৩ ডিসেম্বর ২০২০  

বেক্সিমকো ঢাকা

বেক্সিমকো ঢাকা

বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপের ফিরতি লেগে আগামীকাল আবারো মুখোমুখি হচ্ছে মিনিস্টার রাজশাহী ও বেক্সিমকো ঢাকা। প্রথম লেগে মাত্র ২ রানে জয় পেয়েছিলো রাজশাহী। এবার দলটির বিপক্ষে জিততে মরিয়া ঢাকা।

হ্যাটট্রিক হারের পর গতকালের ম্যাচে প্রথম জয়ের দেখা পায় মুশফিকুর রহিমের দল। জয়ের ধারাটা অব্যাহত রাখাই লক্ষ্য তাদের। অন্যদিকে জয়ের ধারায় ফিরতে মুখিয়ে আছে রাজশাহী। মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আগামীকাল দিনের দ্বিতীয় ম্যাচটি শুরু হবে বিকেল ৫টায়।

টুনার্মেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিলো রাজশাহী ও ঢাকা। মাহেদী হাসানের অলরাউন্ড নৈপুন্যে ২ রানে জয় পায় রাজশাহী। ব্যাট হাতে গুরুত্বপূর্ণ সময়ে জ্বলে উঠেছিলেন তিনি। আর বল হাতে ম্যাচের শেষ ওভারে দেখান চমক। তাতেই জয় দিয়ে টুনার্মেন্টে যাত্রা শুরু করে শান্ত-আশরাফুলের রাজশাহী।

মাহেদীর ব্যাটিংয়ে ঢাকার বিপক্ষে প্রথমে ব্যাট করে ৯ উইকেটে ১৬৯ রানের বড় সংগ্রহ পায় রাজশাহী। সাত নম্বরে নামা এই ব্যাটসম্যান ৩২ বলে ৩টি চার ও ৪টি ছক্কায় ৫০ রান করেন।

জবাবে শেষ দিকে মুক্তার আলীর ঝড়ো ব্যাটিংয়ে জয়ের কাছে পৌঁছে গিয়েছিলো ঢাকা। ১৯তম ওভারে তিনটি ছক্কা মেরে জয়ের সমীকরণ ৯ রানে নামিয়ে আনেন মুক্তার। কিন্তু শেষ ওভারে মাহেদীর বুদ্ধিদীপ্ত বোলিংয়ের সামনে প্রয়োজনীয় ৯ রান তুলতে পারেননি তিনি। ঐ ওভার থেকে মাত্র ৬ রান পায় ঢাকা।

নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে সাকিব-মাহমুদউল্লাহর জেমকন খুলনাকে ৬ উইকেটে হারায় রাজশাহী। খুলনার ছুঁড়ে দেয়া ১৪৭ রানের টার্গেট ১৬ বল হাতে রেখেই স্পর্শ করে ফেলে দলটি। অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত ৩৪ বলে ৫৫, মোহাম্মদ আশরাফুল অপরাজিত ২৫ ও রনি তালুকদার ২৬ রান করেন।

প্রথম দু’ম্যাচ জিতলেও এরপর পথ হারায় রাজশাহী। নিজেদের তৃতীয় ও চতুর্থ ম্যাচে হেরে যায় তারা। তামিম ইকবালের ফরচুন বরিশালের কাছে ৫ উইকেটে ও গাজী গ্রুপ চট্টগ্রামের কাছে মাত্র ১ রানে হারে রাজশাহী।  

রাজশাহীর মত ঢাকার পথচলাও মসৃণ ছিলো না। টুনার্মেন্টে নিজেদের প্রথম তিন ম্যাচই হারে ঢাকা। রাজশাহীর কাছে হার দিয়ে শুরুর পর চট্টগ্রামের কাছে ৯ উইকেটে ও জেমকন খুলনার কাছে ৩৭ রানে ম্যাচ হারে দলটি।

হ্যাটট্রিক হারে ঢাকার মনোবলে চিড় ধরেছিলো। একটি জয়ের সন্ধানে ছিলো তারা। অবশেষে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে কাঙ্খিত জয় পায় দলটি। ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে জয়ের দেখা পায় মুশফিকের দল। বোলারদের নৈপুন্যে প্রথমে ব্যাট করা বরিশালকে ১০৮ রানে আটকে রাখে ঢাকা। এরপর ৭ বল বাকী রেখে ম্যাচটি জিতে নেয় ৭ উইকেটের ব্যবধানে।

আত্মবিশ্বাস ফিরে পেতে টুনার্মেন্টে প্রথম জয়ের প্রয়োজন ছিলো বলে মনে করেন ঢাকার কোচ খালেদ মাহমুদ- প্রথম জয়টি বেশ গুরুত্বপূর্ণ ছিলো। এমন জয় মনোবল ফিরে পেতে দারুণ সহায়তা করে। প্রথম তিন ম্যাচে আমরা কোন পয়েন্ট পাইনি। শেষ ম্যাচে জয়টি খুবই দরকার ছিলো। ম্যাচটি লো-স্কোরিং ছিল ঠিকই তবে উইকেট বেশ কঠিন ছিল। কিন্তু খেলোয়াড়রা যেভাবে খেলেছে, আমি তাদের প্রচেষ্টায় খুশি।

প্রথম ম্যাচে রাজশাহীর কাছে ২ রানে হারা ঢাকা এবার লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত বলে জানান মাহমুদ। জয়ের ব্যাপারে তার দল আত্মবিশ্বাসী, ‘এখন আমরা অনেক বেশী আত্মবিশ্বাসী। আমরা পরের ম্যাচে রাজশাহীর  বিপক্ষে  জয় পেতে প্রস্তুত। প্রথম ম্যাচে আমরা তাদের কাছে ২ রানে হেরেছিলাম। তারা খুবই শক্তিশালী দল, তবে আমাদের দল নিয়ে আমরা আত্মবিশ্বাসী। ছেলেদের ম্যাচ জয়ের সামর্থ্য রয়েছে।’ 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস/এএল