আজ লংকান গ্রেটের জন্মদিন 

ঢাকা, শনিবার   ২৮ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৪ ১৪২৭,   ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

আজ লংকান গ্রেটের জন্মদিন 

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:২২ ২৭ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১৫:১৯ ২৭ অক্টোবর ২০২০

লংকান গ্রেট কুমার সাঙ্গাকারা

লংকান গ্রেট কুমার সাঙ্গাকারা

আজ  নতুন শতাব্দীর সেরা বাঁহাতি ব্যাটসম্যান লংকান গ্রেট কুমার সাঙ্গাকারার জন্মদিন। ৪৩-এ পা রাখলেন এ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান। ক্রিকেটে শ্রীলংকার গৌরবময় সময়ের সারথি সাঙ্গাকারা। 

দীর্ঘ সময় ধরে লংকানদের ব্যাটিং অর্ডারের মূল স্তম্ভ ছিলেন তিনি। টেস্ট হোক কিংবা ওয়ানডে সব ফরম্যাটেই তিনি ছিলেন সত্যিকারের ‘ক্লাস ব্যাটসম্যান’। 

লংকান গ্রেট কুমার সাঙ্গাকারা

২০১৫ সালে অবসর নেয়ার আগে টেস্ট ক্রিকেটে তার নামের পাশে যুক্ত হয় ১২ হাজার ৪০০ রান, গড় ৫৭.৪০! এই ফরম্যাটে ৩৮টি সেঞ্চুরি আর ৫২টি ফিফটি করার কৃতিত্ব আছে তার। এই ফরম্যাটের ষষ্ঠ সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক তিনি। 

সাঙ্গাকারার ওয়ানডে ক্যারিয়ারও তার ক্লাস বজায় রেখেছে। এই ফরম্যাটে ৪০৪ ম্যাচে তার রান ১৪ হাজার ২৩৪ রান, গড় ৪২! এই ফরম্যাটের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক তিনি।  

শুধু ব্যাটিং কেন, উইকেটরক্ষক হিসেবেও তিনি ছিলেন সমীহ জাগানিয়া। মুত্তিয়া মুরালিধরনের মতো বিস্ময় স্পিনারের বলে উইকেটরক্ষকের ভূমিকায় থাকা বিশ্বের অনেক বড় মাপের উইকেটরক্ষকের জন্যও অসুবিধার কারণ হওয়ার কথা। সেখানে তার অনায়াস কিপিং ছিল তার ব্যাটিংয়ের মতোই রীতিমত দৃষ্টিনন্দন।  

ওয়ানডে ক্যারিয়ারে ৪৮২টি ডিসমিসাল নিয়ে উইকেটরক্ষকদের তালিকায় শীর্ষে তার নাম। টেস্টে নিয়মিত উইকেটরক্ষক না হয়েও ১৩৪ ম্যাচের ৯০ ইনিংসে ১৫১টি ডিসমিসাল তার।

লংকান গ্রেট কুমার সাঙ্গাকারা

টেস্ট র‍্যাংকিংয়ে ২০০৫ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত সবচেয়ে বেশিবার শীর্ষস্থানে ছিলেন সাঙ্গাকারা। তার ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বড় অর্জন ২০১৪ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়। সেবার ফাইনালে তার ব্যাটিং ঝলকেই শিরোপা জেতে শ্রীলংকা। ম্যাচসেরাও হন তিনি। সাঙ্গাকারার হাত ধরেই ২০০৭, ২০১১ ওয়ানডে বিশ্বকাপ এবং ২০০৯ ও ২০১২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে পা রাখে লংকানরা।  

২০১৫ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেয়ার পরও বিভিন্ন দেশের ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি লিগ খেলেছেন এই লংকান মহাতারকা। সর্বশেষ ২০২০ সালে মেরিলিবন ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে পাকিস্তানে প্রীতি ম্যাচ খেলেছেন তিনি।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস/এনকে