অবসর ভাবনা খোলাসা করলেন মাশরাফী

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২২ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ৭ ১৪২৭,   ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

অবসর ভাবনা খোলাসা করলেন মাশরাফী

ক্রীড়া প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:২৯ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৫:১৮ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা

মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা

ফিটনেস ফিরে পাওয়ার পাশাপাশি নিজেদের ঝালিয়ে নিতে অনেকদিন ধরেই অনুশীলন করছেন জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। মিরপুর হোম অব ক্রিকেটে তামিম-মুশফিকরা প্রস্তুত হচ্ছেন, বিকেএসপিতে হচ্ছেন সাকিব। তবে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক ও নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা নেই কোথাও। বর্তমানে পল্লবীতে নিজ কার্যালয়ে বসে নির্বাচনী এলাকার মানুষদের দাবি শোনা ও সেসব সমাধানের পথ খুঁজতেই ব্যস্ত তিনি। এরই মাঝে নিজের অবসর ভাবনা নিয়ে কথা বলেছেন তিনি। 

দেশের এক জাতীয় দৈনিকের সঙ্গে কথোপকথনে নিজের বর্তমান অবস্থা ও ভবিষ্যৎ ভাবনা দুই দিক নিয়েই কথা বলেন মাশরাফী। জানিয়েছেন, করোনার এই সময়ে তার ওজন বেড়েছে ১০ কেজির বেশি। তবে ক্রিকেট শুরু হলে সব ঠিক হয়ে যাবে বলে বিশ্বাস করেন তিনি। 

তবে ওজন বাড়লেও ক্রিকেটে নিজের শেষ দেখছেন না মাশরাফী। এ প্রসঙ্গে নড়াইল এক্সপ্রেস বলেন, ‘প্রশ্নই আসে না। ওজন যখন বেড়েছে, ওজন কমাতেও পারব। আমার করোনা হওয়ার কয়েক দিন আগেও থ্রি প্যাক ছিল, সেই আমার এখন ভুঁড়ি দেখা যায়! ক্রিকেটে ফেরার রিদম নিয়ে আমার কখনোই সমস্যা হয়নি। আশা করি এবারো হবে না।’

গেল বিশ্বকাপে বাজে পারফরম্যান্সের পর থেকেই মাশরাফীর অবসর প্রসঙ্গ বারবার উঠে এসেছে। সেখানে ক্রিকেটে ফেরার প্রস্তুতি শুনলে প্রশ্ন উঠে যায়, এটা কি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের জন্য নাকি শুধুই ঘরোয়া ক্রিকেটের জন্য? এ বিষয়ে ম্যাশের বক্তব্য, ‘আমি তো বাচ্চা ছেলে না যে বিশ্বকাপে মাত্র এক উইকেট পাওয়ার পর যদি জাতীয় দলে না নেয় তাহলে চেঁচামেচি করব। তবে আবার এটাও মনে করি না যে আমি শেষ।’ 

মাশরাফী যোগ করেন, ‘খেয়াল করে দেখুন বিশ্বকাপের আগের তিনটি সিরিজে সবচেয়ে বেশি উইকেট আমারই। যাই হোক, ওসব বলে লাভ নেই। আমি আমার মতো চেষ্টা করে যাব। যারা দল গড়েন, বাকিটা তাঁদের ওপরই ছেড়ে দিচ্ছি। আসলে আমি অত দূর ভাবছিও না। শুধু অপেক্ষায় আছি কবে আবার ডমেস্টিক শুরু হবে। আমাকে সেটার জন্য তৈরি হতে হবে।’

অবসর প্রসঙ্গে নিজের আগের অবস্থানেই আছেন মাশরাফী। জাতীয় দলের সাবেক এই অধিনায়ক বলেন, ‘আমার অবসরের আলোচনা তো নতুন কিছু না। সেই ২০০১ সালেই আমার ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যেতে পারত। এরপর আরো তিনবার এমন হয়েছে। কিন্তু আমি ফিরে এসেছি। এবার পারব কি না জানি না, তবে আমি সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাব।’

আনুষ্ঠানিকভাবে অবসর নেয়ার প্রশ্নে মাশরাফি বলেন, ‘যদি না নিই, আপনার অসুবিধা কী?’ রসিকতা করে এভাবে বোলার পর সিরিয়াস হয়ে এই পেসার বলেন, ‘ধোনির অবসর নেওয়ার ধরণটা আমার দারুণ লেগেছে। তবে তার মানে এই না যে আমিও একটি টুইট করব। আমার কাছে আসলে ঘটা করে অবসর নেয়া অত গুরুত্বপূর্ণ নয়। নিলে নেব, না নিলে নাই।’ 

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল