টাইগারদের শ্রীলংকা সফর হবে কী? যা বললেন আকরাম

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২২ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ৭ ১৪২৭,   ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

টাইগারদের শ্রীলংকা সফর হবে কী? যা বললেন আকরাম

ক্রীড়া প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:০৫ ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৮:০৬ ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটি প্রধান আকরাম খান

বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটি প্রধান আকরাম খান

মহামারি করোনার কারণে দীর্ঘদিন মাঠের বাইরে টাইগাররা। ক্রিকেট মাঠে ফিরলেও এখনো ফিরতে পারেনি বাংলাদেশ দল। শ্রীলংকা সফর দিয়ে ক্রিকেটে ফেরার পরিকল্পনা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের(বিসিবি)। তবে এখনো নিশ্চিত না সফর। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের শ্রীলঙ্কা সফর ঘোর অনিশ্চয়তায়। সঠিক করে কোনো কিছুই জানাতে পারলেন না জাতীয় দল পরিচালনা এবং তত্ত্বাবধানের দায়িত্বে থাকা ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটি প্রধান আকরাম খান।

সোমবার দুপুর গড়িয়ে বিকেল নামতেও কোয়ারেন্টাইন ইস্যুতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পাঠানো প্রস্তাবের জবাব আসেনি। মানে লঙ্কান বোর্ড এখনো কোনো কিছুই জানায়নি।

জাতীয় দল পরিচালনা এবং তত্ত্বাবধানের দায়িত্বে থাকা ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটি প্রধান আকরাম খান বলেন, আসলে আমরা এখন যা যা করছি, তা তো আগে থেকেই ঠিক করা। সফর হবে ধরে নিয়েই এসব পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে। আমরা কবে যাব, কবে কখন অনুশীলন শুরু হবে, কোয়ারেন্টাইন টেস্ট কবে হবে, ক্রিকেটাররা কোথায় থাকবে-সব কিছুই একটা ছক কষে তৈরি করা।

আকরাম খান যোগ করেন, এখন আমরা সফর হবে ধরেই আগাচ্ছি। তবে এটা স্বীকার করতে দ্বিধা নেই যে সফর এখনও অনিশ্চিত। লঙ্কানরা আমাদের আজ পর্যন্ত কোনই জবাব দেয়নি। আমরা পত্র-পত্রিকায় পড়ছি। কিন্তু খোদ লংকান বোর্ড থেকে আমাদের কোনো কিছুই জানানো হয়নি। তারা আমাদের দাবি মেনে নিয়েছে বা নিবে কি না, তাও জানি না’।

সফরের নিশ্চয়তা সম্পর্কে আকরাম বলেন ‘আসলে আমরা আমাদের প্রস্তুতিটুকু নিয়ে রাখছি। সফর হলে যাতে আর কোনো সমস্যা না হয়। যথাসময়ে দল শ্রীলঙ্কা যেতে পারে, তার আগের যা যা করণীয়, তা করা হচ্ছে। এখন সফর না হলে আর কি করা! তখন আমরা বিকল্প বেছে নেব। হয়তো ঘরোয়া ক্রিকেট চালুর কথা ভাবব। এখন আমরা যা করছি তা সফর হবে ধরেই। আর অর্থ খরচ নিয়ে ভাবছি না। এটা তো আমাদের পরিকল্পনায়ই ছিল। আমরা ক্রিকেটারদের সবভাবে প্রস্তুত রাখছি। এখন সফর বাাতিল হলে তো আর কিছু করার নেই’।

২১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু শ্রীলঙ্কা সফরের প্রস্তুতি। আর ১৮ সেপ্টেম্বর করোনা টেস্ট দিয়ে নেগেটিভ ক্রিকেটাররা ২০ সেপ্টেম্বর সোনারগাঁ হোটেলে উঠে যাবেন। এগুলো আগে থেকেই ঠিক করা। কিন্তু সফর নিশ্চিত না হওয়ায় ২১ সদস্যর টেস্ট স্কোয়াড চূড়ান্ত হবার পরও ঘোষণা আসেনি। তাই বাধ্য হয়ে যে ২৭ জনের ‘জিও’ (গর্ভনমেন্ট অর্ডার) করা হয়েছে, তাদের সবাইকে অনুশীলনে ডাকা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস