আইপিএলের তিন স্টেডিয়ামের খুঁটিনাটি

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৭ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১২ ১৪২৭,   ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

আইপিএলের তিন স্টেডিয়ামের খুঁটিনাটি

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:০৭ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

প্রতীক্ষার প্রহর শেষে আজ থেকে মাঠে গড়াচ্ছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ত্রয়োদশ আসর। করোনাভাইরাসের কারণে ভারতের বদলে সংযুক্ত আরব আমিরাতে এবারের ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে। মোট তিনটি স্টেডিয়ামে শিরোপার লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে ৮টি দল। এগুলো হচ্ছে আবু ধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়াম, দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম ও শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়াম। 

আইপিএল শুরুর আগে একনজরে জেনে নেয়া যাক স্টেডিয়ামগুলোর খুঁটিনাটি: 

শেখ জায়েদ স্টেডিয়াম (আবু ধাবি)

আইপিএলের উদ্বোধনী ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে আবু ধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে। প্রথম ম্যাচেই মুখোমুখি হবে গতবারের দুই ফাইনালিস্ট মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ও চেন্নাই সুপার কিংস। ২০০৪ সালে এই স্টেডিয়ামটি তৈরি হয়। মোট দর্শক ধারণ ক্ষমতা ২০ হাজার। স্কটল্যান্ড ও কেনিয়ার মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম হিসেবে এই মাঠের অভিষেক হয়।

আবু জায়েদ স্টেডিয়াম২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলংকা ক্রিকেট দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে দীর্ঘদিন ঘরের মাঠে হোম ম্যাচ আয়োজন করতে পারেনি পাকিস্তান। ফলে অস্ট্রেলিয়া, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে হোম সিরিজগুলো এই স্টেডিয়ামে আয়োজন করেছিল পাক জাতীয় দল। এছাড়া ২০০৬ সালে এই স্টেডিয়ামে ভারত-পাকিস্তান ফ্রেন্ডশিপ ওয়ানডে সিরিজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের জন্য ২০১৪ সালের আইপিএলের প্রথম অংশ আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সেবারও উদ্বোধনী ম্যাচ হয়েছিল এই স্টেডিয়ামেই যেখানে মুখোমুখি হয় কলকাতা নাইট রাইডার্স ও মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। আইপিএলের দলগুলোর মধ্যে রাজস্থান রয়্যালস শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে সব চেয়ে সফল। চেন্নাই সুপার কিংস এখানে দুটি ম্যাচ খেলে একটি জিতেছে। মুম্বাই এখানে মাত্র একবারই খেলেছে আর সেটিতেই হারের মুখ দেখেছে। এ বারের আইপিএলের লিগ পর্বের ১৯টি ম্যাচ হবে শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে।

দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম

দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের আসন সংখ্যা মূলত ২৫,০০০। তবে এখানে একসঙ্গে ৩০ হাজার পর্যন্ত দর্শক বসার ব্যবস্থা রয়েছে। ২০০৯ সালে এই স্টেডিয়াম তৈরি হয়। এখানকার প্রথম ওয়ানডে ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া ও পাকিস্তানের মধ্যে। দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রথম বোলার হিসেবে পাঁচটি উইকেট শিকার করেন শহীদ আফ্রিদি।

দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম২০১৬ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টেস্টে পাকিস্তানের ব্যাটসম্যান আজহার আলি এই স্টেডিয়ামে অপরাজিত ৩০২ রানের ইনিংস খেলেছিলেন। এই স্টেডিয়ামে এটাই ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ স্কোর। এবারের আইপিএলের মোট ২৪টি ম্যাচ দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে। এই স্টেডিয়ামের উইকেট স্পিনার ও ব্যাটসম্যান সহায়ক।
 
শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়াম

১৯৮২ সালে শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়াম তৈরি করা হয়। এর আসন সংখ্যা মাত্র ১৭ হাজার। ভারত-পাকিস্তানের একাধিক ওয়ানডে ম্যাচ এই স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এখানেই চেতন শর্মার করা ম্যাচের শেষ বলে ছক্কা মেরে পাকিস্তানকে জিতিয়েছিলেন জাভেদ মিয়াঁদাদ।

শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামএই স্টেডিয়ামে ১৯৯৮ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে মরু ঝড় তুলেছিলেন শচীন টেন্ডুলকার। সেবার ত্রিদেশীয় সিরিজ জিতেছিল ভারত। এবারের আইপিএলের ১২টি ম্যাচ হবে শারজাহ স্টেডিয়ামে। ২০১৪ সালের আইপিএলে ছয়টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছিল এখানে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল