উইন্ডিজ ঝড় নাকি পাকিস্তানের জয়ে ফেরা?

ঢাকা, শনিবার   ০১ অক্টোবর ২০২২,   ১৫ আশ্বিন ১৪২৯,   ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

Beximco LPG Gas

উইন্ডিজ ঝড় নাকি পাকিস্তানের জয়ে ফেরা?

ক্রীড়া প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১০:৪২ ৩১ মে ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ওয়ানডে ক্রিকেটে প্রথম দল হিসেবে ৫০০ রান করার ঘোষণা দেয়ার মাধ্যমে বিশ্বকাপে নিজেদের নিয়ে ভাবনা পরিষ্কার করে দিয়েছে উইন্ডিজ ক্রিকেট দল। অপরদিকে টানা হারের বৃত্তে থাকা পাকিস্তান নিজেদের জয়ের খোঁজে দিশেহারা অবস্থায় রয়েছে। এ অবস্থায় বলা যায়, মানসিকভাবে অনেকটা বিপরীত মেরুতে থেকে আজ নটিংহামের ট্রেন্ট ব্রিজে বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে উইন্ডিজ ও পাকিস্তান। ম্যাচটি শুরু হবে স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টায়, আর বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩.৩০ মিনিটে।

শাই হোপের বলা ৫০০ রানের উক্তিটি এরইমধ্যে অনেক আলোচনার জন্ম দিয়েছে। তবে ক্রিকেট বোদ্ধাদের মতে এটি অতি আত্মবিশ্বাসমূলক কোনো কথা নয়। উইন্ডিজ ক্রিকেট দলে এই কথাকে সত্য প্রমাণ করার জন্য যথেষ্ট রসদ জমা আছে। ক্রিস গেইল, আন্দ্রে রাসেল এরা থাকলে বিশ্বের যে কোনো দলই বড় কিছু করার আত্মবিশ্বাস সঙ্গে রাখতে পারে। নিজের দিনে গেইল কি করতে পারে সেটি সবাই খুব ভালো করেই জানে। রাসেল শেষ প্রস্তুতি ম্যাচে ২৫ বলে ৫৪ রান করে নিজের সম্পর্কে বার্তা দিয়ে রেখেছে। এছাড়া উইন্ডিজ ব্যাটিং লাইনআপে আছেন এভিন লুইস, ড্যারেন ব্রাভো, শেই হোপ, হেটমায়ারের মতো বিধ্বংসী সব ব্যাটসম্যান। 

নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে ৪২১ রানকে যদি কেউ ফ্লুক ভেবে থাকেন তবে তাদের জন্য উল্লেখ্য, উইন্ডিজ তাদের সর্বশেষ ১০ ওয়ানডে ইনিংসে ৩৮৯, ৩৮১, ৩৬০ ও ৩৩১ রানের মতো স্কোর করেছে। কাজেই বিশ্বকাপেও তারা বড় ইনিংস খেললে অবাক হওয়ার কিছুই থাকবে না। গেইল এবং তার টিমমেটদের লক্ষ্যও থাকবে এদিকেই।

অপরদিকে পাকিস্তান দল একটানা ১০ ম্যাচ হারার পর বিশ্বকাপে নতুন করে শুরু করতে চাইবে। বোলিং ডিপার্টমেন্ট নিয়ে পাকিস্তানের বিশেষভাবে কাজ করা উচিত। ইংল্যান্ডে সম্প্রতি খেলা নিজেদের ৪ ম্যাচে ১৪২৪ রান দেয়া পাকিস্তানি বোলারদের বড় চ্যালেঞ্জ থাকবে রান কম দেয়া। লেগ স্পিনার শাদাব খান ফেরায় বোলিং লাইন আপ একটু উন্নত হচ্ছে পাকিস্তানের। তবে এক্ষেত্রে অবশ্যই বাকী বোলারদের এগিয়ে আসতে হবে। 

শেষ দশ ম্যাচের হতশ্রী পারফরম্যান্সের পর কোনো ক্রিকেটবোদ্ধার কাছেই পাকিস্তান দল ফেভারিট হিসেবে সমাদৃত হচ্ছে না। তবে ২০১৭ সালে ইংল্যান্ডের মাটিতেই চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জেতা থেকে তারা অনুপ্রেরণা নিতে পারে। 

বোলিং নিয়ে দুশ্চিন্তার যথেষ্ট অবকাশ থাকলেও ব্যাটিং সাইড পাকিস্তানকে কিছুটা নির্ভরতা দিচ্ছে। টপ অর্ডারে ফখর জামান তাদের মূল ব্যাটসম্যান। তবে বাবর আজম, ইমাম উল হক, মোহাম্মদ হাফিজ, শোয়েব মালিক প্রত্যেকেই বড় কিছু করার সামর্থ্য রাখেন। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজে পরপর ৩ ম্যাচে ৩৪০ এর অধিক রান করা তাদের ব্যাটিং শক্তির কথাই প্রকাশ করে। 

দুই দলের ব্যাটিং এপ্রোচ থেকে শুরু করে ভিন্নতা আছে অনেক কিছুতেই। তবে উভয় দলের লক্ষ্যই এক, ম্যাচ জিতে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করা। এমন পরিস্থিতিতে ম্যাচটি উপভোগ্য হওয়ার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে।
 
ম্যাচে বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা খুব কম। তবে আকাশ মেঘলা থাকবে এবং আবহাওয়া যথেষ্ট ঠান্ডা থাকতে পারে। পিচ হিসেবে প্রচুর রান হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। 

উইন্ডিজ একাদশ (সম্ভাব্য)
ক্রিস গেইল, এভিন লুইস, শেই হোপ, ড্যারেন ব্রাভো, শিমরন হেটমায়ার, আন্দ্রে রাসেল, জেসন হোল্ডার ( অধিনায়ক) , অ্যাাশলে নার্স, শেলডন কটরেল, ওশানে থমাস, কেমার রোচ।

পাকিস্তান একাদশ (সম্ভাব্য)
ফখর জামান, ইমাম উল হক, বাবর আজম, হারিস সোহেল, শোয়েব মালিক, সরফরাজ আহমেদ ( অধিনায়ক ), ইমাদ ওয়াসিম, শাদাব খান, মোহাম্মাদ আমির, হাসান আলী, শাহিন আফ্রিদি। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল

English HighlightsREAD MORE »