বিস্ফোরিত হাইড্রোজেন বোমা থেকে নতুন ধাতুর সন্ধান

ঢাকা, বুধবার   ০৩ মার্চ ২০২১,   ফাল্গুন ১৮ ১৪২৭,   ১৮ রজব ১৪৪২

বিস্ফোরিত হাইড্রোজেন বোমা থেকে নতুন ধাতুর সন্ধান

বিজ্ঞান ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:০৫ ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

নতুন ধাতু আইস্টেনিয়াম। ছবি: সংগৃহীত

নতুন ধাতু আইস্টেনিয়াম। ছবি: সংগৃহীত

‘আইস্টেনিয়াম’ নামের নতুন এক ধাতুর খোঁজ পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। পদার্থবিজ্ঞানী অ্যালবার্ট আইনস্টাইনের নাম অনুযায়ী এ ধাতুর নামকরণ করা হয়েছে।

ভারতের বর্কলে ল্যাবরেটরিতে গবেষণা করে রেডিওঅ্যাক্টিভ এই ধাতুটির বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়েছেন গবেষকরা।

১৯৫২ সালের ১ নভেম্বর প্রথম হাইড্রোজেন বোমা বিস্ফোরণ হয়েছিল। প্রশান্ত মহাসাগরের তীরে বিস্ফোরিত এ বোমার অভিঘাত থেকে যে ধ্বংসাবশেষ হয়েছিল তাতে ‘আইস্টেনিয়াম’ পাওয়া গিয়েছিল।

জানা গেছে, এতে এত সক্রিয় উপাদান ছিল যে সেটা নিয়ে খুব বেশি কাজ করছিল। ধাতু প্রচণ্ড রেডিওঅ্যাকটিভ ছিল। যার প্রয়োগ করা যাচ্ছিল না। এর থেকে বিকিরণ হয়। যা আশপাশের জন্য খুবই ক্ষতিকর।

বিজ্ঞানভিত্তিক জার্নাল স্টাডি থেকে জানা যায়, পঞ্চাশের দশকে ছোট দ্বীপ এলুগেলাবে হাইড্রোজেন বোমা বিস্ফোরণ হয়েছিল। নতুন এ ধাতু নিয়ে যে বিজ্ঞানীরা কাজ করেছেন, তাদের জীবনহানীর সম্ভবনাও থাকতো। এরপর গামা কিরণ বিকিরণ করছিল। যার থেকে জীবনহানীর ভয় থাকতো। এই বোমায় যে ক্ষতি হয়েছিল যা নাগাসাকির পরমাণু বিস্ফোরণের থেকে ৫০০ গুণ জোরালো হয়েছিল।

আইস্টেনিয়ামের রং অনেকটা রূপার মতো। পাশাপাশি অন্ধকার হলে তাতে নীল রঙ দেখা যায়। আর খুবই নরম এই ধাতু। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, রেডিওঅ্যাক্টিভ ধাতু হওয়ায় রাসায়নিকভাবে এই ধাতুর প্রয়োগ হওয়া সম্ভব।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে