মানবদেহে লুকিয়ে থাকা নতুন অঙ্গের সন্ধান

ঢাকা, বুধবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৮ ১৪২৭,   ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২

মানবদেহে লুকিয়ে থাকা নতুন অঙ্গের সন্ধান

বিজ্ঞান ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:৫৭ ২৩ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১১:৫৭ ২৩ অক্টোবর ২০২০

মানবদেহে লুকানো নতুন অঙ্গের সন্ধান-সংগৃহীত ছবি।

মানবদেহে লুকানো নতুন অঙ্গের সন্ধান-সংগৃহীত ছবি।

চিকিৎসা বিজ্ঞান চর্চায় নজর এড়িয়ে থাকা মানবদেহে নতুন একটি অঙ্গ আবিষ্কার করেছেন নেদারল্যান্ডসের একদল বিজ্ঞানী। লালা গ্রন্থির একটি গুচ্ছ নাকের আড়ালে  মানবদেহের এ অঙ্গটি নিয়ে আরো গবেষণা করছেন তারা।-খবর ইন্ডিয়া টুডের।

ইন্ডিয়া টুডের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বহু শতাব্দী ধরে বিভিন্ন মেডিকেল গবেষণা চলছে। তবে মানবদেহের লালা গ্রন্থির একটি গুচ্ছ নাকের আড়ালে যে অঙ্গটি ‍লুকিয়ে রয়েছে তা এতোদিন চিকিৎসকদের নজরে আসেনি। মূলত প্রোস্টেট ক্যান্সার নিয়ে গবেষণা করার সময় মানুষের গলায় একটি সম্ভাব্য নতুন অঙ্গ খুঁজে পান বিজ্ঞানীরা।

নেদারল্যান্ডসের ক্যান্সার ইনস্টিটিউটের অ্যানকোলজি এবং সার্জারি বিভাগের গবেষক ও গবেষণার সহরচয়িতা ওয়াটার ভোগেল বলেন, গবেষণাটি ‘রোমাঞ্চকর’ ছিল, কিন্তু গবেষকরা প্রথমে ‘কিছুটা সংশয়ী’ ছিলেন।

তিনি বলেন, এখনো মানবদেহে তিন লালাগন্থির পরিচিতি রয়েছে। একটি জিহবার নিচে, আরেকটি জোয়ালের নিচে, আরটি জোয়াল ও গালের পেছনে। এগুলো ছাড়াও গলা ও মুখের টিস্যুতে এক হাজার ক্ষুদ্র লালাগন্থি ছড়িয়ে-ছিটিয়ে রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, আমরা যখন মানবদেহে নতুন অঙ্গটি পেয়েছি তখন আশ্চর্য হই।

ভোগেল বলেন, যেহেতু চিকিৎসকরা রোগীর ভালো জীবন ব্যবস্থায় খারাপ প্রভাব রুখতে ক্যান্সারের চিকিৎসায় মাথা, ঘাড়ে রেডিয়েশন ব্যবহার করেন। তাই এ আবিষ্কার ক্যান্সার চিকিৎসার জন্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ।

প্রোস্টেট ক্যান্সার রোগীদের খাওয়া, গিলে ফেলা বা কথা বলা সবচেয়ে বড় সমস্যা। আমাদের পরবর্তী ধাপ হচ্ছে, কীভাবে কোনো রোগীর এই নতুন অঙ্গ এড়িয়ে চলা যায় তা খুঁজে বের করা। যদি আমরা এটি করতে পারি, তবে রোগীরা কম পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় ভুগবে যা চিকিৎসার পর দ্রুত সুস্থ জীবন পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ