লাইলাতুল কদরের আমল ও দোয়া

ঢাকা, রোববার   ২০ জুন ২০২১,   আষাঢ় ৮ ১৪২৮,   ০৮ জ্বিলকদ ১৪৪২

লাইলাতুল কদরের আমল ও দোয়া

ধর্ম ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৩৫ ৯ মে ২০২১  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

আজ রোববার দিবাগত রাত পবিত্র লাইলাতুল কদর বা শবে কদর। ইসলাম ধর্মে বলা হয়েছে, অন্যান্য সময় এক হাজার মাস ইবাদত করলে যে সওয়াব পাওয়া যায়, কদরের এই রাতে ইবাদত করলে তার চেয়ে বেশি সওয়াব পাওয়া যায়।

লাইলাতুল কদরেই পবিত্র কোরআন নাজিল হয়েছে। পবিত্র কোরআনে ইরশাদ হয়েছে, ‘নিশ্চয়ই আমি কোরআন অবতীর্ণ করেছি মহিমান্বিত রাতে। আর মহিমান্বিত রাত সম্পর্কে তুমি কি জানো? মহিমান্বিত রাত হাজার মাসের চেয়ে উত্তম।’ (সুরা : কদর, আয়াত : ১-৩)

শবে কদরের আমল

লাইলাতুল কদরে নিচের এসব আমল ও দোয়ায় রাত অতিবাহিত করা জরুরি-

* নফল নামাজ পড়া।

* মসজিদে ঢুকেই ২ রাকাআত (দুখুলিল মাসজিদ) নামাজ পড়া।

* দুই দুই রাকাআত করে (মাগরিবের পর ৬ রাকাআত) আউওয়াবিনের নামাজ পড়া।

* রাতে তারাবিহ নামাজ পড়া।

* শেষ রাতে সাহরির আগে তাহাজ্জুদ নামাজ পড়া।

* সম্ভব হলে সালাতুত তাসবিহ পড়া।

* সম্ভব হলে তাওবার নামাজ পড়া।

*সম্ভব হলে সালাতুল হাজাত পড়া।

* সম্ভব হলে সালাতুশ শোকর ও অন্যান্য নফল নামাজ বেশি বেশি পড়া।

* কুরআন তেলাওয়াত করা। সুরা কদর, সুরা দুখান, সুরা মুয্যাম্মিল, সুরা মুদ্দাসির, সুরা ইয়াসিন, সুরা ত্বহা, সুরা আর-রাহমান, সুরা ওয়াকিয়া, সুরা মুলক, সুরা কুরাইশ এবং ৪ কুল পড়া।

* দরূদ শরিফ পড়া।

* তাওবাহ-ইসতেগফার পড়া। সাইয়্যেদুল ইসতেগফার পড়া।

*জিকির-আজকার করা।

* কুরআন-সুন্নায় বর্ণিত দোয়াপড়া।

* পরিবার পরিজন, বাবা-মা ও মৃতদের জন্য দোয়া করা।

আরো যে দোয়া পড়তে পারেন

উম্মুল মুমিনিন হযরত আয়েশা (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন- হে আল্লাহর রাসুল, আমি যদি জানতে পারি যে, কোন রাতটি লাইলাতুল কদর— তাহলে তখন কোন দোয়া পড়বো? তখন তিনি বললেন, তুমি বলো—

اللَّهمَّ إنَّك عفُوٌّ كريمٌ تُحِبُّ العفْوَ، فاعْفُ عنِّي

উচ্চারণ : আল্লাহুম্মা ইন্নাকা আফুউন কারিম; তুহিব্বুল আফওয়া, ফা’ফু আন্নি।

অর্থ : হে আল্লাহ, আপনি মহানুভব ক্ষমাশীল। আপনি ক্ষমা করতে পছন্দ করেন। অতএব আপনি আমাকে ক্ষমা করুন।’ (তিরমিজি, হাদিস : ৩৫১৩)

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে