ধর্ম ব্যবহার করে বিভেদ সৃষ্টির ষড়যন্ত্র হচ্ছে: এলজিআরডিমন্ত্রী

ঢাকা, রোববার   ০২ অক্টোবর ২০২২,   ১৭ আশ্বিন ১৪২৯,   ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

Beximco LPG Gas

ধর্ম ব্যবহার করে বিভেদ সৃষ্টির ষড়যন্ত্র হচ্ছে: এলজিআরডিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:৪৭ ১১ জুন ২০২২   আপডেট: ১৭:০৭ ১২ জুন ২০২২

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম- ফাইল ফটো

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম- ফাইল ফটো

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, দেশে সব ধর্মের মানুষ রাষ্ট্রের সুযোগ সুবিধা সমানভাবে ভোগ করছে এবং তাদের নিজ নিজ ধর্ম নির্বিঘ্নে পালন করছে।

তিনি বলেন,  একটি মহল উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে ধর্মকে ব্যবহার করে মানুষের মধ্যে ভেদাভেদ তৈরির মাধ্যমে দেশের মধ্যে অরাজকতা সৃষ্টির ষড়যন্ত্র করছে।

শনিবার সিলেটে ধোপাদীঘির পাড়ে আয়োজিত ভারত ও বাংলাদেশ সরকারের যৌথ অর্থায়নে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের দীঘির চতুর্দিকে ওয়াক ওয়ে, ছয়তলা বিশিষ্ট স্কুল ভবন নির্মাণ কাজের এবং ছয়তলা বিশিষ্ট ক্লিনার কলোনি ভবন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তাজুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ভারত আমাদের নিকটতম প্রতিবেশী রাষ্ট্র। বাংলাদেশের জন্মলগ্ন থেকেই দুই দেশের সম্পর্ক অত্যন্ত চমৎকার। আমাদের স্বার্থ অক্ষুন্ন রেখে দেশটির সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বজায় রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ভারতের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক ন্যায্যতার। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সময় থেকেই এই সম্পর্ক তৈরি হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমলে এই সম্পর্ক নতুন এক উচ্চতায় পৌঁছেছে।

তিনি জানান, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী সারাদেশে সমতার ভিত্তিতে উন্নয়ন কাজ পরিচালনা করা হচ্ছে। কোনো অঞ্চলকে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে না। যেসব উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে দেশ অর্থনৈতিকভাবে উপকৃত হবে, কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে সেসব প্রকল্পে বেশি গুরুত্ব দিয়ে প্রকল্প নেয়া হচ্ছে।

নিরাপদ ও সুপেয় পানি সরবরাহের জন্য সিলেট ওয়াসা গঠন করা হচ্ছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, সিলেট ওয়াসা প্রতিষ্ঠিত হলে শহরে পানির সমস্যার সমাধান হবে। ওয়াসা কার্যকর করতে সবার সহযোগিতার প্রয়োজন হবে।

মন্ত্রী বলেন, সম্প্রতি বন্যার ফলে সিলেট নগরীসহ এই অঞ্চলে ক্ষতিগ্রস্ত সড়কগুলো সংস্কারে প্রয়োজনীয় বরাদ্দ দেওয়া হবে এবং সিলেট সিটি কর্পোরেশনের বর্ধিত এলাকার জন্য প্রকল্প নেয়া হলে তা অনুমোদনও দেওয়া হবে।

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন, স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ্ উদ্দিন এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআরকে

English HighlightsREAD MORE »