ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করতে কৃষকদের কাছ থেকে ধান কেনা হচ্ছে: খাদ্যমন্ত্রী
15-august

ঢাকা, বুধবার   ১০ আগস্ট ২০২২,   ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯,   ১১ মুহররম ১৪৪৪

Beximco LPG Gas
15-august

ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করতে কৃষকদের কাছ থেকে ধান কেনা হচ্ছে: খাদ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:৪৬ ১৬ মে ২০২২   আপডেট: ১৬:২৯ ১৬ মে ২০২২

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার- ফাইল ছবি

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার- ফাইল ছবি

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করতে কৃষকদের কাছ থেকে সরাসরি ধান কিনছে সরকার। প্রতি কেজি ২৭ টাকা মূল্যে এক মণ ধান এক হাজার ৮০ টাকা দামে কেনা হচ্ছে।

সোমবার সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে হাওর রক্ষা বাঁধ ও এলএসডি পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

এর আগে রোববার রাতে মন্ত্রী সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসন কার্যালয়ে বোরো ধান ও চাল সংগ্রহ বিষয়ে খাদ্য কর্মকর্তা, মিলার, ডিলার ও অংশীজনের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

এ সময় স্থানীয়রা জানান, সুনামগঞ্জে কৃষকরা ন্যায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। সিন্ডিকেটের কারণে মাত্র সাতশ’ টাকা মূল্যে প্রতি মণ ধান বিক্রি করতে হয়। 

এ প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, সাতশ’ টাকা দরে কৃষক ধান বিক্রি করবেন, এটা হতে পারে না। ধানের ন্যায্যমূল্য দিতেই সরকার সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান কিনছে। কেউ যেন সিন্ডিকেট তৈরি করে কৃষকদের বঞ্চিত না করে সে ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক হতে হবে।

আরো পড়ুন> ২০২৪ সালে ৮০ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রফতানি করতে পারব: বাণিজ্যমন্ত্রী

তিনি কৃষকদের উদ্দেশ্যে বলেন, ধান দেওয়ার সময় শুকিয়ে ১৪ শতাংশ আর্দ্রতা নিশ্চিত করবেন। তালিকায় থাকা কৃষকদের কাছ থেকে খাদ্য কর্মকর্তারা ধান সংগ্রহ করবেন। যদি কেউ ধান নিতে অপারগতা জানায়, আমাকে জানাবেন।

সাধন চন্দ্র মজুমদার আরো বলেন, সুনামগঞ্জে ৪০ হাজার মেট্রিক টন ধারণ ক্ষমতার একটি সাইলো তৈরি করা হবে। সুনামগঞ্জে ধান শুকানোর জায়গা নেই। ৮-১০টি ধান শুকানোর পেডি সাইলো নির্মাণ করে দেওয়া হবে, যাতে কৃষকরা ধান নিয়ে এসে এক ঘণ্টার মধ্যে ১৪ শতাংশ আর্দ্রতা নিশ্চিত করতে পারেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- খাদ্য সচিব ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম, সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক, মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক জাহাঙ্গীর হোসেন, পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, সিলেট বিভাগের আঞ্চলিক জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো. মাইন উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খায়রুল কবির রুমেন প্রমুখ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমএস/এইচএন

English HighlightsREAD MORE »