ন্যাটোতে যোগদান নিয়ে ফিনল্যান্ড-সুইডেনকে সর্তক করলো রাশিয়া

ঢাকা, বুধবার   ০৫ অক্টোবর ২০২২,   ২১ আশ্বিন ১৪২৯,   ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

Beximco LPG Gas

ন্যাটোতে যোগদান নিয়ে ফিনল্যান্ড-সুইডেনকে সর্তক করলো রাশিয়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৪:০৩ ১২ এপ্রিল ২০২২  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ইউরোপভিত্তিক দেশগুলোর সামরিক জোট ন্যাটোর সঙ্গে যোগ দেওয়ার কথা ভাবছে ফিনল্যান্ড ও সুইডেন। যা এরইমধ্যে চিন্তা সৃষ্টি করেছে রাশিয়ার। এরইমধ্যে ন্যাটোতে যোগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়ায় সুইডেন ও ফিনল্যান্ডকে হুঁশিয়ারি বার্তা দিয়েছে রাশিয়া।

সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে জানা গেছে, ফিনল্যান্ড ও সুইডেন দেশকে ক্রেমলিন হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ন্যাটোতে যোগ দেওয়ার পদক্ষেপ ইউরোপে স্থিতিশীলতা আনতে কোনো ভূমিকা রাখবে না।

ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ সোমবার সাংবাদিকদের বলেন, ‌ন্যাটো এমন কোনো জোট নয় যা বিশ্বজুড়ে শান্তি ও স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করে। এটি আরো বড় হলে তা ইউরোপ মহাদেশের কোনো নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে না।

আরো পড়ুন: রাশিয়ার তেলের বিকল্প নেই, ইইউকে সতর্ক করল ওপেক

ফিনল্যান্ড ও সুইডেন ন্যাটো জোটে যোগ দেওয়া নিয়ে এমন সময় আগ্রহ দেখিয়েছে যখন ইউক্রেনে মস্কোর আক্রমণ একটি ‘বিশাল কৌশলগত ভুল’ যা ন্যাটোর পরিবর্ধন নিয়ে আসতে পারে বলে মার্কিন প্রতিরক্ষা কর্মকর্তারা মন্তব্য করেছেন। মার্কিন কর্মকর্তারা আশা করছেন, সম্ভাব্য জুনের প্রথম দিকে নর্ডিক দেশ দুটো ন্যাটো জোটের সদস্যপদ পাওয়ার জন্য বিড করবে। এর ফলে ন্যাটোর সদস্য সংখ্যা ৩০ থেকে বেড়ে ৩২ তে বর্ধিত হবে।

এর আগে সংবাদ মাধ্যম দ্য টাইমসকে মার্কিন কর্মকর্তারা জানান, গত সপ্তাহে অনুষ্ঠিত ন্যাটো জোটভুক্ত দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে সুইডেন ও ফিনল্যান্ডের বিষয়ে কয়েকটি আলাদা বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। এরপরই বিষয়টি নতুন করে আলোচনায় আসে।

সে সময় ন্যাটোর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা জানান, ইউক্রেনে রুশ বাহিনীর আগ্রাসন চালানোর পর ফিনল্যান্ড ও সুইডেন গুরুত্বের সঙ্গে জোটে যোগ দেওয়া নিয়ে আলোচনা শুরু করে।

উল্লেখ্য, মস্কো যদি এবারই প্রথম না, আগে থেকেই ফিনল্যান্ডকে সাবধান করে আসছিল। দুই দেশের মধ্যে রয়েছে প্রায় ১৪০০ কিলোমিটারের সীমান্ত। তবে রাশিয়ার ইউক্রেনে হামলার পর এখন ন্যাটোতে যোগ দেয়ার বিকল্প দেখছে না ফিনল্যান্ড। ফিনিশ প্রধানমন্ত্রী সানা ম্যারিন আগেও ইঙ্গিত দিয়ে বলেছেন, সময় হয়ে এসেছে। ইউক্রেনে হামলার মধ্য দিয়ে রাশিয়ার সঙ্গে ফিনল্যান্ডের সম্পর্ক বদলে গেছে। তাই ফিনল্যান্ডের নিরাপত্তা নিশ্চিত করাই হবে আমাদের প্রধান লক্ষ্য।

অন্যদিকে সুইডেনের শাসক দল সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টি ঐতিহ্যগতভাবে ন্যাটোর বিরুদ্ধে ছিল সবসময়। তবে এবার তাদেরও টনক নড়েছে। প্রতিবেশি দেশগুলোর বিরুদ্ধে রাশিয়া যেভাবে আগ্রাসন চালাচ্ছে তাকে নিজের জন্যও বড় হুমকি মনে করছে দলটি। দলের পক্ষ থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে সোমবার বলা হয়, রাশিয়া যখন ইউক্রেনে হামলা করলো, সুইডেনের নিরাপত্তার ধারণা মৌলিকভাবে পাল্টে গেছে।

সূত্র: বিবিসি

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ

English HighlightsREAD MORE »