পাকিস্তানের ক্যারিশমাটিক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পতনের বড় কারণ
15-august

ঢাকা, রোববার   ১৪ আগস্ট ২০২২,   ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯,   ১৫ মুহররম ১৪৪৪

Beximco LPG Gas
15-august

পাকিস্তানের ক্যারিশমাটিক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পতনের বড় কারণ

ইকবাল শাহরিয়ার চৌধুরী ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:৩৯ ১০ এপ্রিল ২০২২   আপডেট: ১৯:০১ ১৩ এপ্রিল ২০২২

ক্রিকেট বীর থেকেই একজন জাতীয় বীর ইমরান খান। এরপর তিনি রূপান্তরিত হয়েছিলেন একজন ক্যারিশম্যাটিক রাজনৈতিক নেতা হিসেবে।

পাকিস্তানে স্বাস্থ্যবীমা চালুকরণ, হেলথ কার্ড প্রণয়ন থেকে শুরু করে স্বল্প আয়ের মানুষদের জন্য ফ্ল্যাট নির্মাণসহ বহু পদক্ষেপ এই মানুষটি নিয়েছিলেন। সবচেয়ে বড় কাজটি ছিল বহু দশক ধরে পাকিস্তানের রাজনীতিতে গেঁড়ে বসা প্রতিদ্বন্দ্বী দুর্নীতিবাজ দুই পরিবারকে বেশ সংগ্রামের পর অপসারণ করতে পেরেছিলেন।

পাকিস্তান রাষ্ট্রের অস্তিত্বের বেশিরভাগ সময় ধরেই দেশটির নিয়ন্ত্রণ রয়েছে সেনাবাহিনীর হাতে। তার প্রতি সেনা সমর্থন বেশ ছিল। তারা ইমরানকে পছন্দ করতো। কিন্তু শেষে কি এমন হয়েছিল? বিবিসি একটি প্রতিবেদনে কিছুটা প্রকাশ করেছে। কিছু অংশ তুলে ধরলাম। 

আইএসআই প্রধান  লেফটেন্যান্ট জেনারেল ফায়েজ হামিদ ইমরান খানের পছন্দের লোক ছিলেন।  সেনাপ্রধান জেনারেল বাজওয়ার পর তিনিই সম্ভাব্য সেনাপ্রধান হওয়ার দৌড়ে অগ্রগামী। 

কিন্তু সেনাপ্রধান ও লেঃ জেঃ ফায়েজ হামিদের মধ্যে সম্পর্ক ভাল যাচ্ছিল না। জেনারেল বাজওয়া এবং লেঃ জেনারেল ফায়েজ হামিদের মধ্যেকার বিরোধ প্রকাশ্য হয়ে উঠেছিল গত গ্রীষ্ম মৌসুমে প্রভাবশালী রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের সাথে এক আলাপচারিতার সময়। একজন সাংবাদিক একটি প্রশ্ন করেছিলেন, কিন্তু আইএসআই প্রধান বলে বসেন যে সময় শেষ হয়ে গেছে। তখন সেনাপ্রধান বাজওয়া বলেন, “আমি হচ্ছি সেনাপ্রধান এবং আমি সিদ্ধান্ত নেব কখন সময় শেষ হবে”, লেঃ জেনারেল হামিদকে থামিয়ে দিয়ে বলেছিলেন জেনারেল বাজওয়া। তখন ঐ সাংবাদিকের প্রশ্নের উত্তরও দেন সেনাপ্রধান।

অক্টোবর মাসে তাদের দুজনের বিরোধ চরমে পৌঁছায় এবং এর মাঝখানে পড়ে যান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। জেনারেল বাজওয়া গোয়েন্দা সংস্থার প্রধান হিসেবে নতুন কারো কথা ভাবছিলেন এবং বিভিন্ন পদে পরিবর্তনের ঘোষণা দিয়েছিল সেনাবাহিনী সদরদপ্তর। কিন্তু এই সিদ্ধান্তের ঘোর বিরোধিতা করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। পরিবর্তী নির্বাচন পর্যন্ত আইএসআই প্রধান হিসেবে লেঃ জেনারেল হামিদ স্বপদে থাকুন সেটা চাইছিলেন ইমরান খান। পদ পরিবর্তন বিষয়ক প্রজ্ঞাপন সপ্তাহ তিনেক আটকিয়েও রেখেছিলেন ইমরান খান।  

এরমধ্যে রাশিয়ার ইউক্রেন আক্রমণের সময়ে রাশিয়া ও চীনের দিকে বেশি ঝুঁকে যাওয়া আরেকটি বড় কারণ। দুর্নীতিবাজ বড় দুইদল, সেনাবাহিনী ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ত্রৈমাত্রিক আক্রমণে ক্যারিশম্যাটিক এই নেতার পদচ্যুতি ঘটে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএইচ/এমএস

English HighlightsREAD MORE »