রমজানের চাঁদ দেখে যে দোয়া পড়বেন

ঢাকা, রোববার   ০২ অক্টোবর ২০২২,   ১৭ আশ্বিন ১৪২৯,   ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

Beximco LPG Gas

রমজানের চাঁদ দেখে যে দোয়া পড়বেন

ধর্ম ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:৪৮ ৩১ মার্চ ২০২২  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

রমজান মাসের চাঁদের উদয় মুমিন জীবনের অনেক গুরুত্বপূর্ণ এক বিষয়। এ চাঁদ প্রতিটি মুসলমানের যাপিত জীবনের সময়সূচিতে এবং দৈনন্দিন জীবনের কার্যতালিকাতে বিরাট পরিবর্তন আনে।

এই চাঁদ দেখার মাধ্যমেই শুরু হয় দীর্ঘ নামাজ ২০ রাকাত তারাবির প্রস্তুতি ও সেহরির আয়োজন। অনেক গুরুত্ব বাড়ে তাহাজ্জুদ নামাজের ও কোরআন খতমের। আল্লাহ ভক্ত মানুষ অধীর আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষায় থাকেন কখন রমজানের চাঁদের দেখা মিলবে আর অনেক গুণ বেশি সওয়াব লাভের বিশ্বাস নিয়ে আগের চেয়ে অনেক বেশি সওয়াবের কাজে মনোনিবেশ করবে। এ চাঁদের উদয় মুমিন মাত্র ব্যক্তিকেই ইবাদাতের জন্য উদগ্রীব করে তোলে। তাই শাবান মাসের ২৯ তারিখ সন্ধ্যায় বড়-ছোট ও নর-নারী সবার চোখ থাকে পশ্চিমের আকাশে।

সুতরাং যারা রহমতের মাস রমজানের নতুন চাঁদ দেখবেন; তারা বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের পড়া সেই দোয়াটি পড়বেন। যেখানে শান্তি ও নিরাপত্তার প্রার্থনা রয়েছে। হাদিসে এসেছে-

হজরত তালহা ইবনু ওবায়দুল্লাহ রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যখন নতুন চাঁদ দেখতেন তখন বলতেন-
اَللهُ اَكْبَرُ اَللَّهُمَّ أَهِلَّهُ عَلَيْنَا بِالْأَمْنِ وَ الْاِيْمَانِ وَالسَّلَامَةِ وَ الْاِسْلَامِ وَ التَّوْفِيْقِ لِمَا تُحِبُّ وَ تَرْضَى رَبُّنَا وَ رَبُّكَ الله

উচ্চারণ: আল্লাহু আকবার, আল্লাহুম্মা আহিল্লাহু আলাইনা বিল আমনি ওয়াল ঈমানি ওয়াসসালামাতি ওয়াল ইসলামি ওয়াত্তাওফিকি লিমা তুহিব্বু ওয়া তারদা রাব্বুনা ওয়া রাব্বুকাল্লাহ।

অর্থ: আল্লাহ মহান, হে আল্লাহ! এ নতুন চাঁদকে আমাদের নিরাপত্তা, ঈমান, শান্তি ও ইসলামের সঙ্গে উদয় কর। আর তুমি যা ভালোবাস এবং যাতে তুমি সন্তুষ্ট হও, সেটাই আমাদের তাওফিক দাও। আল্লাহ তোমাদের এবং আমাদের প্রতিপালক।’ (তিরমিজি, মিশকাত)

এ ছাড়াও রমজানের চাঁদ দেখার খবর শুনেই হৃদয়ের গভীর থেকে আল্লাহর কাছে মুমিনের আকুতিভরা প্রার্থনা হবে এমন-

اللَّهُمَّ سَلِّمْنِي لرمضان، وسلم رمضان لي، وتسلمه مني مُتَقَبَّلاً

উচ্চারণ: আল্লাহুম্মা সাল্লিমনি লিরমাদান, ওয়া সাল্লিম রামাদানা লি, ওয়া তাসলিমাহু মিন্নি মুতাক্বাব্বিলা। (তাবারানি)

অর্থ: হে আল্লাহ! আমাকে শান্তিময় রমজান দান করুন। রমজানকে আমার জন্য শান্তিময় করুন। জন্য রমজানকে শান্তিময় করে দিন। রমজানের শান্তিও আমার জন্য কবুল করুন।

নবী করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, তোমরা (রমজান মাসের) চাঁদ না দেখে রোজা শুরু করবে না এবং (ঈদের) চাঁদ না দেখে রোজা ত্যাগ করবে না। আর যদি আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকে (চাঁদ দেখতে না পাও) তাহলে মাসের ত্রিশ দিন পূর্ণ করবে। -সহিহ বোখারি: ১৯০৬

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে

English HighlightsREAD MORE »