‘বঙ্গবন্ধুর ছাত্রলীগ দেশের ইতিহাসের স্বাক্ষর বহন করে’

ঢাকা, বুধবার   ০৫ অক্টোবর ২০২২,   ২০ আশ্বিন ১৪২৯,   ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

Beximco LPG Gas

‘বঙ্গবন্ধুর ছাত্রলীগ দেশের ইতিহাসের স্বাক্ষর বহন করে’

রাবি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২২:২৩ ১৪ মার্চ ২০২২  

রাবি শাখা ছাত্রলীগের সমন্বিত হল সম্মেলনে অতিথিরা

রাবি শাখা ছাত্রলীগের সমন্বিত হল সম্মেলনে অতিথিরা

‘বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে গড়ে উঠা ছাত্রলীগ দেশের গুরুত্বপূর্ণ ইতিহাসের স্বাক্ষর বহন করে। ছাত্রলীগের একজন কর্মী হিসেবে দেশনেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করে দেশের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে নিজের সর্বোচ্চ দিয়ে কাজ করার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ গড়তে হবে।’

সোমবার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবাস বাংলাদেশ মাঠে ছাত্রলীগের সমন্বিত হল সম্মেলনে এসব কথা বলেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য।

তিনি আরো বলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের রক্তে রঞ্জিত একটি ময়দান। যার প্রতিটি কোনায় স্বাধীনতা বিরোধী শক্তির অস্ত্রের আঘাতে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের রক্ত ঝরেছে। রাবি ছাত্রলীগের ত্যাগ আমাদের সর্বদা অনুপ্রেরণা জুগিয়ে থাকে। তাই স্বাধীনতা বিরোধী জামাত-শিবির মুক্ত একটি বিশ্ববিদ্যালয় গড়তে নতুন নেত্ববৃন্দসহ এক হয়ে কাজ করার মাধ্যমে জননেত্রী শেখ হাসিনা হাত শক্তিশালী করতে হবে। 

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় বলেন, এই হল সম্মেলনের মাধ্যমে এমন নেতৃত্ব উঠে আসবে, যারা আগামীর বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে এগিয়ে যাবে। জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করে এগিয়ে যাবে। এই হল সম্মেলনে সেই নেতৃত্ব উঠে আসবে যে নেতৃত্ব নিঃস্বার্থভাবে শিক্ষার্থীদের জন্য কাজ করবে, নিজের কথা চিন্তা না করে জাতির পিতার আদর্শ বাস্তবায়ন করে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও আাওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, আমি ছাত্রলীগ ভাইদের বারবার বলছি, হুশিয়ার করছি। আজকে জামায়াত-শিবির নাই, মানে প্রকাশ্যে নাই। কিন্তু তারা আমাদের মধ্যেই বিচরণ করছে। ফোঁস করার আগেই জামায়াত-শিবিরের গলা কেটে দিতে হবে।

সম্মেলন অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন- ডাক, টেলিযোগাযোগ ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অনিল সরকার, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াদুদ দারা, আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপ কমিটির সদস্য ডা. আনিকা ফারিয়া জামান অর্ণা, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য, সহ-সভাপতি খালিদ হাসান নয়ন, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল্লাহ হীল বারী, সহ-সম্পাদক শরিফুল ইসলাম সাদ্দাম, প্রদীপ কামুর সাহা পিংকু, আহসান হাবীব বাপ্পী, আফি আজাদ বান্টি, মুক্তিযুদ্ধ ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক মেহেদী হাসান তাপস প্রমুখ।

এর আগে, ২০১৫ সালের ১৯ জানুয়ারি সর্বশেষ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮টি হলের কমিটি ঘোষণা করেন তৎকালীন রাবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান রানা ও সাধারণ সম্পাদক খালিদ হাসান বিপ্লব। এরপর বর্তমান কমিটি হল কমিটি দিতে সক্ষম হননি। যদিও  ২০২০ সালের ৫ ফেব্রুয়ারিতে হল সম্মেলনের উদ্যোগ নেয় বর্তমান মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটি। কিন্তু সম্মেলনের ঠিক দুদিন আগে তা স্থগিত করে দেওয়া হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম

English HighlightsREAD MORE »