হিজাব না পরার কারণেই ভারতে ধর্ষণের হার সবচেয়ে বেশি: কংগ্রেস নেতা

ঢাকা, সোমবার   ০৩ অক্টোবর ২০২২,   ১৯ আশ্বিন ১৪২৯,   ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

Beximco LPG Gas

হিজাব না পরার কারণেই ভারতে ধর্ষণের হার সবচেয়ে বেশি: কংগ্রেস নেতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৫৮ ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১৭:০১ ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২

ছবি: জমির আহমেদ

ছবি: জমির আহমেদ

হিজাব না পরার কারণেই ভারতে ধর্ষণের হার সবচেয়ে বেশি বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির প্রধান বিরোধীদলীয় দল কংগ্রেসের এক বিধায়ক (সংসদ সদস্য)। দক্ষিণ ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের হিজাব বিতর্ককে কেন্দ্র করে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অফ ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কর্ণাটকের কংগ্রেস নেতা এবং বিধায়ক জমির আহমেদ বলেছেন, ‘ইসলামে হিজাবের প্রকৃত অর্থ হচ্ছে পর্দা। মেয়েরা বড় হলে তাদের সৌন্দর্য লুকানোর জন্য পর্দা করতে হয়। আজ আপনারা দেখবেন যে, আমাদের দেশে ধর্ষণের হার সবচেয়ে বেশি। এর পেছনে কী কারণ বলে মনে করেন? এর কারণ হচ্ছে, অনেক নারী হিজাব পরেন না।’

এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘অবশ্য হিজাব পরা বাধ্যতামূলক না। যারা নিজেদের রক্ষা করতে চায় এবং শারীরিক সৌন্দর্য সবার কাছে প্রকাশ করতে চান না তারাই কেবল হিজাব পরেন। হিজাব পরার রীতি ভারতে বহু বছর ধরে প্রচলিত।’

আরো পড়ুন>> বৈশ্বিক মূল্যস্ফীতি: যেসব কারণে লাগামহীনভাবে বাড়ছে নিত্য পণ্যের দাম

সম্প্রতি, রাজ্যটির একটি কলেজে কয়েকজন ছাত্রীকে হিজাব পরে আসায় ক্লাসের অনুমতি দেওয়া হয়নি। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ‘হিজাব’ ইস্যুতে পুরো ভারতজুড়ে বিতর্ক চলছে। কেউ কেউ হিজাবের পক্ষে, আবার কেউ কেউ এর বিপক্ষে অবস্থান গ্রহণ করেছেন।

এ অবস্থায় অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন বা মিম প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়াইসি বলেছেন, ‘হিজাব পরা মেয়েই একদিন ভারতের প্রধানমন্ত্রী হবেন।’

রোববার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সাংসদ আসাদউদ্দিন নেটমাধ্যমে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। সেখানে তাকে বলতে শোনা যায়, ‘হিজাব পরা নারীরা কলেজে যাবেন, জেলা কালেক্টর হবেন, জেলাশাসক, চিকি়ৎসক, ব্যবসায়ী ইত্যাদি হবেন।’

এদিকে সোমবার ভারতের বিভিন্ন আদালতে হিজাব-বিতর্কে একাধিক মামলার শুনানি রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী

English HighlightsREAD MORE »