সম্ভাবনাময় হিমেল অকালেই ঝরে গেলো: রাবি ভিসি

ঢাকা, সোমবার   ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২,   ১২ আশ্বিন ১৪২৯,   ২৮ সফর ১৪৪৪

Beximco LPG Gas

সম্ভাবনাময় হিমেল অকালেই ঝরে গেলো: রাবি ভিসি

রাবি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৩৩ ৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২  

রাবিতে হিমেল স্মরণে চারুকলায় স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। ছবি- ডেইলি বাংলাদেশ

রাবিতে হিমেল স্মরণে চারুকলায় স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। ছবি- ডেইলি বাংলাদেশ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ভিসি বলেছেন, হিমেল ছিলো সম্ভাবনাময় একজন শিক্ষার্থী, কিন্তু অকালেই প্রাণটি ঝরে গেছে। হিমেলের আত্মার শান্তির জন্য এখন আমাদের দোয়া করা ছাড়া আর অন্য কোনো পথ নেই।  

রোববার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদ কর্তৃক আয়োজিত হিমেল স্মরণ সভায় এসব কথা বলেন ভিসি অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার।

ভিসি আরো বলেন, আমরা হিমেলের মায়ের ভার পোষণের সার্বিক দায়িত্ব নিয়েছি। হিমেলকে ঘিরে আমরা অনেক পরিকল্পনা হাতে নিয়েছি। এরই মধ্যে কিছু বাস্তবায়িত হয়েছে, আর কিছু বাকি রয়েছ আশা করি খুব শীঘ্রই এসব বাস্তবায়িত হবে।

আরো পড়ুন>>> রাবিতে মোমবাতি জ্বালিয়ে হিমেলকে স্মরণ

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে ভিসি আরো বলেন, শিক্ষার্থীদের প্রতি অনুরোধ থাকবে, যেনো তারা সাবধানে চলা ফেরা করে। আর যেনো এরকম প্রাণ হারাতে না হয় আমাদের। তোমাদের জন্যই আমরা। আমার মনে হয় তোমাদের সঙ্গে আমাদের কিছুটা দূরত্ব তৈরি হয়েছে, তা আর রাখতে চাই না। বিশ্ববিদ্যালয়ে যত সমস্যা আছে বা তৈরি হবে তা তোমাদের সঙ্গে নিয়েই সমাধান করব।

রাবির কেন্দ্রীয় মসজিদের পেশ ইমাম ফাহিম মাহমুদের সঞ্চালনায় এবং চারুকলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আলীর সভাপতিত্বে সভায় অন্যদের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা এম তারেক নূর, প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক, জোহা হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক একরামুল ইসলাম, চারুকলা অনুষদসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

আরো পড়ুন>>> হিমেল স্মরণে উন্মুক্ত শিল্পকর্মে প্রতিবাদ সহপাঠীদের

এর আগে, গত সোমবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ হবিবুর রহমান হল সংলগ্ন রাস্তায় বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রাফিক ডিজাইন, কারুশিল্প ও শিল্পকলার ইতিহাস বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মাহমুদ হাবিব হিমেল নির্মমভাবে নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত পাথরবাহী এক ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে নিহত হন। এ ঘটনার পরে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা পাঁচ ট্রাকে আগুন দেওয়াসহ বিভিন্নভাবে প্রতিবাদ কর্মসূচি করেন। শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন দাবি জানালে তোপের মুখে বিশ্ববিদ্যালয় ভিসি অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার তাদের সব দাবি মেনে নেয় এবং ইতোমধ্যে এর কিছু কিছু বাস্তবায়নও করেছেন তিনি। হিমেল ‘হত্যাকান্ডের’ পর থেকে এখনও আলপনা এবং জলরঙে ছবি এঁকে নানাভাবে প্রতিবাদ কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছে শিক্ষার্থীরা।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম

English HighlightsREAD MORE »