প্রয়োজনে দখলদারদের কারাদণ্ড দেওয়া হবে: মেয়র তাপস

ঢাকা, সোমবার   ০৩ অক্টোবর ২০২২,   ১৯ আশ্বিন ১৪২৯,   ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

Beximco LPG Gas

প্রয়োজনে দখলদারদের কারাদণ্ড দেওয়া হবে: মেয়র তাপস

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৪৫ ২ ফেব্রুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১৫:২৪ ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২২

শ্যামপুর খাল পরিষ্কার কার্যক্রম পরিদর্শন করেন ডিএসসিসি মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস

শ্যামপুর খাল পরিষ্কার কার্যক্রম পরিদর্শন করেন ডিএসসিসি মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস

প্রয়োজনে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে দখলদারদেরকে কারাদণ্ড দিতে বাধ্য হবেন বলে সতর্কবার্তা দিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

বুধবার দুপুরে নগরীর শ্যামপুর এলাকায় শ্যামপুর খাল পরিষ্কার কার্যক্রম সরেজমিন পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে দখলদারদের বিরুদ্ধে এ হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

শেখ তাপস বলেন, দখল ঢাকাবাসীর জন্য একটি বড় সমস্যা। দখলদারদের বিরুদ্ধে আমরা ভবিষ্যতে আরো কঠোর হব। প্রয়োজন হলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আমরা তাদেরকে কারাদণ্ড দিতে বাধ্য হব।

খাল সংরক্ষণে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার কথা উল্লেখ করে ডিএসসিসি মেয়র বলেন, আমাদের লক্ষ্য হলো খালগুলোকে সম্পূর্ণরূপে স্থায়ীভাবে সংরক্ষণ করা, রক্ষণাবেক্ষণ করা এবং নান্দনিক পরিবেশ সৃষ্টি করা। যাতে করে বছর বছর নতুন করে খনন বা এগুলো অপসারণ করতে না হয়। সেই লক্ষ্যে আমরা একটি প্রকল্প জমা দিয়েছি। প্রকল্পটি প্ল্যানিং কমিশন থেকে কিছু মতামত দিয়ে পাঠিয়েছে। আমরা সেগুলো আবার বিচার-বিশ্লেষণ-পর্যালোচনা করে জমা দেব।

সড়কের ওপর বিভিন্ন জায়গায় দখলদারদের স্থায়ী পার্কিং বাণিজ্য নিয়ে করা সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমরা যেখানেই দখল পাচ্ছি, সেখানেই অভিযান পরিচালনা করছি। সপ্তাহের পাঁচদিন দখলমুক্ত করার কাজ চালিয়ে যাচ্ছি। কিন্তু ঢাকা শহরে এত জনগোষ্ঠী, এত জনসংখ্যার চাপ যে, দখল বাণিজ্য অত্যন্ত সংকট হিসেবে পরিণত হয়েছে। সেগুলোর বিরুদ্ধে আমরা প্রতিনিয়ত কাজ করে চলেছি।

জলাবদ্ধতা নিরসনে গতবারের চাইতে এবার আরো বেশি সুফল ঢাকাবাসীকে দেওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করে মেয়র বলেন, আপনারা লক্ষ্য করেছেন, আমাদের আসলে অনেক পুঞ্জীভূত সংকট। আমরা একটা একটা করে সেগুলো সমাধানের দিকে এগিয়ে চলেছি। জলাবদ্ধতা ঢাকাবাসীর জন্য বড় সমস্যা। আমরা গতবছর কিছুটা সুফল দিতে পেরেছি। এবার আশাবাদী, আরেকটু বেশি সুফল দিতে পারব এবং দীর্ঘ মেয়াদি সমাধানের দিকে আগাতে পারব।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে ঢাকা-৫ আসনের এমপি কাজী মনিরুল ইসলাম, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদ আহাম্মদ, প্রধান প্রকৌশলী সালেহ আহম্মেদ, সচিব আকরামুজ্জামান, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা আরিফুল হক, সংশ্লিষ্ট অঞ্চলগুলোর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তারা, কাউন্সিলর ও মহিলা কাউন্সিলররা উপস্থিত ছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএইচ/এইচএন

English HighlightsREAD MORE »