করোনা পজিটিভ জুভেন্টাসের রামসে
15-august

ঢাকা, সোমবার   ০৮ আগস্ট ২০২২,   ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯,   ০৯ মুহররম ১৪৪৪

Beximco LPG Gas
15-august

করোনা পজিটিভ জুভেন্টাসের রামসে

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:২২ ১২ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ১৬:২৫ ১২ জানুয়ারি ২০২২

অ্যারন রামসে

অ্যারন রামসে

করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন জুভেন্টাসের মিডফিল্ডার অ্যারন রামসে। বর্তমানে তিনি বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন বলে সিরি আ ক্লাব সূত্র নিশ্চিত করেছে।

কোচ ম্যাক্সিমিলিয়ানো অ্যালেগ্রির অধীনে নিজেকে খুব একটা ফিট প্রমাণে ব্যর্থ হওয়া এই ওয়েলসম্যান আবারো ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে (ইপিএল) ফিরে আসছেন বলে ট্রান্সফার মার্কেটে জোর গুঞ্জন রয়েছে।

গত সপ্তাহে খোদ অ্যালেগ্রি নিশ্চিত করেছিলেন, এবারের জানুয়ারি ট্রান্সফার উইন্ডোতে একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে ক্লাব ছেড়ে যাচ্ছেন রামসে। সিরি আ লিগ টেবিলের শীর্ষে থাকা ইন্টার মিলানের থেকে ১১ পয়েন্ট পিছিয়ে বর্তমানে পঞ্চম স্থানে রয়েছে জুভেন্টাস।

এদিকে বাম হাঁটুর লিগামেন্টে গুরুতর ইনজুরিতে পড়ায় জুভেন্টাসের ইতালিয়ান ফরোয়ার্ড ফেডেরিকো চিয়েসার মৌসুমের বাকিটা সময় মাঠে নামা নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে। ইনজুরির মাত্রা এতটাই গুরুতর যে তাকে অস্ত্রোপচারের করাতে হবে।

রোমার বিপক্ষে সোমবার সিরি আর উত্তেজনাকর ম্যাচে খেলতে গিয়ে ইনজুরিতে পড়েন চিয়েসা। স্তাদিও অলিম্পিকোতে প্রথমার্ধেই ইনজুরি আক্রান্ত হন ২৪ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড। ম্যাচে জুভেন্টাস দুইবার পিছিয়ে পড়েও শেষ পর্যন্ত ৪-৩ গোলের জয় নিশ্চিত করে।

জুভেন্টাসের পক্ষ থেকে অবশ্য নিশ্চিত করে বলা হয়নি কবে নাগাদ চিয়েসা মাঠে ফিরতে পারেন। কিন্তু এই ধরনের এসিএল ইনজুরিতে পুরোপুরি সুস্থ হতে সাধারণত কয়েক মাস লেগে যায়। ইতালিয়ান গণমাধ্যম এরই মধ্যেই তার মৌসুম শেষের তথ্য দিয়েছে।

ইনজুরির কারণে বিশ্বকাপের প্লে অফে তাকে না পাওয়ার সম্ভাবনাই বেশী। মার্চের শেষে নর্থ মেসিডোনিয়ার বিপক্ষে বাঁচা মরার লড়াইয়ে মাঠে নামবে আজ্জুরিরা।

চিয়েসার অনুপস্থিতি ইতালিয়ান কোচ রবার্তো মানচিনির জন্য দু:শ্চিন্তা বয়ে এনেছে। গত গ্রীষ্মে ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়নশীপের শিরোপা জয়ে তার বড় অবদান ছিল।

পেশীর ইনজুরির কারণে বেশ কিছুদিন বিশ্রামে থাকার পর মাত্রই মাঠে ফিরেছিলেন চিয়েসা। এবারের প্রতিযোগিতায় সব মিলিয়ে জুভেন্টাসের হয়ে চিয়েসা চার গোল করেছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস/এএল

English HighlightsREAD MORE »