অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত লঞ্চ এখন যেন বিনোদন স্পট!

ঢাকা, বুধবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২,   ১৪ আশ্বিন ১৪২৯,   ০১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

Beximco LPG Gas

অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত লঞ্চ এখন যেন বিনোদন স্পট!

ঝালকাঠি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:১৩ ৩ জানুয়ারি ২০২২   আপডেট: ২০:১৯ ৩ জানুয়ারি ২০২২

অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত লঞ্চ এখন যেন বিনোদন স্পট। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত লঞ্চ এখন যেন বিনোদন স্পট। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ঝালকাঠিতে অভিযান-১০ লঞ্চে আগুনের ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত লঞ্চটি এখন বিনোদন স্পটে পরিণত হয়েছে। প্রতিদিন শহরের বিনোদন পিপাসু লোকজন পারিবারিক ও কাজের সুযোগ হলেই চিত্তবিনোদনের জন্য বের হয়ে বিনোদন স্পটে পৌর মিনি পার্ক ও ডিসি পার্কে ভিড় জমান। 

ঝালকাঠির কালেক্টরেট স্কুল চত্বরেই ডিসি পার্ক সংলগ্ন সুগন্ধা নদীর তীরে রাখা হয়েছে। লঞ্চটিকে দেখতে উৎসুক জনতা ভিড় করছে। একদিকে বিনোদন স্পট ডিসি পার্ক আবার সেখানে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত লঞ্চ, অদূরেই শহরের মিনি পার্ক। তাই বিকেল হলেই জনসাধারণ বিনোদন স্পটে আসলেই তাকিয়ে থাকে ক্ষতিগ্রস্ত লঞ্চটির দিকে। বিভিন্ন স্টাইলে ছবি তোলার পাশাপাশি চলছে সেলফি সংগ্রহও। 

ঝালকাঠিতে অভিযান-১০ লঞ্চে আগুনের ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত লঞ্চটি এখন বিনোদন স্পটে পরিণত হয়েছে।

ডিসি মো. জোহর আলী জানিয়েছেন, অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত এমভি অভিযান ১০ লঞ্চটিকে ঝালকাঠির লঞ্চঘাট থেকে সরিয়ে সুগন্ধা নদী তীরের ডিসিপার্ক এলাকায় রাখা হয়েছে।

আরো পড়ুন >>> লঞ্চে অগ্নিকাণ্ড: বার্ন ইনস্টিটিউটে আরো একজনের মৃত্যু

সকাল ১০টায় সুন্দরবন-১২ লঞ্চ দিয়ে পুড়ে যাওয়া লঞ্চটিকে ডিসি পার্কে নেয়া হয়। পণ্য ওঠানামা ও যাত্রীদের সুবিধার্থে জেলা প্রশাসন পুড়ে যাওয়া লঞ্চটি লঞ্চঘাট থেকে সরিয়ে ডিসি পার্ক সংলগ্ন সুগন্ধা নদীর তীরে নেয়। স্বজন হারানোর বেদনায় মালিকসহ ২০ জনকে আসামি করে সদর থানায় সুমন সরদার বাদী হয়ে মামলা করলে ক্ষতিগ্রস্ত লঞ্চটিতে উদ্ধার করে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই নজরুল। 

ঝালকাঠিতে অভিযান-১০ লঞ্চে আগুনের ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত লঞ্চটি এখন বিনোদন স্পটে পরিণত হয়েছে।

গত ২৩ ডিসেম্বর ভোররাতে বরগুনাগামী এমভি অভিযান-১০ লঞ্চটি ঝালকাঠির সুগন্ধা নদীতে এলে আগুন লাগে। প্রথমদিন লঞ্চের মধ্য থেকে ৩৭ জন এবং গত সাতদিনে সুগন্ধা ও বিষখালী নদী থেকে ৫ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ছাড়া বরিশাল শেবাচিম হাসপাতাল ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান আরও ৫জন। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ৪৭ জন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন এখনো ২৯ জন। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে

English HighlightsREAD MORE »