কাউন্সিলর সোহেল হত্যার নেপথ্যে প্রেমঘটিত বিষয়!

ঢাকা, রোববার   ২৩ জানুয়ারি ২০২২,   ৯ মাঘ ১৪২৮,   ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

কাউন্সিলর সোহেল হত্যার নেপথ্যে প্রেমঘটিত বিষয়!

কুমিল্লা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:১৭ ২৩ নভেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৮:৩৭ ২৩ নভেম্বর ২০২১

সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত কাউন্সিলর সোহেল। ফাইল ছবি

সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত কাউন্সিলর সোহেল। ফাইল ছবি

কুমিল্লায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে কাউন্সিলর সোহেলের নিহত হওয়ার ঘটনার নেপথ্যের কারণ খুঁজতে গিয়ে বেরিয়ে এসেছে এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। 

জানা গেছে, কাউন্সিলর সোহেল ও নবগ্রামের শাহ আলমের মধ্যে যে বিরোধ চলে আসছিল তার পেছনে রয়েছে একটি প্রেম ঘঠিত বিষয়। এই প্রেমের বিষয়টিই শেষ পর্যন্ত কাউন্সিলর সোহেল ও তার সহযোগির জীবন কেড়ে নিল কিনা তা নিয়ে চলছে নগর কুমিল্লায় নানা জল্পনা কল্পনা। 

কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ১৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও আওয়ামী লীগ নেতা সোহেলকে হত্যার পেছনে ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের নবগ্রাম এলাকার শাহআলমের সংশ্লিষ্টতা কথা বলছেন নিহতের স্বজন ও স্থানীয়রা। 

এই দুইজনের বিরোধকে কেন্দ্র করে রোববার রাতে ওই এলাকায় হামলা- ভাঙচুরের ঘটনাও ঘটে। 

জানা যায়, নবগ্রামের এক ছেলের সঙ্গে ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের পাথুরিয়াপাড়ার এক মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। গত ১৫ নভেম্বর ওই ছেলে পাথুরিয়াপাড়ায় মেয়েটির সঙ্গে দেখা করতে গেলে তাকে চোর বলে ধাওয়া করে স্থানীয়রা। ওই ছেলে শাহআলমের বন্ধু। ধাওয়া করার এক পর্যায়ে সে নবগ্রামে শাহআলমের বাসায় আশ্রয় নেয়। এ সময় শাহআলম ধাওয়াকারীদের ভয় দেখিয়ে ফাঁকা গুলি ছোড়ে। 

১৭ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ার ঘটনাটি মেনে নিতে পারেননি কাউন্সিলর সোহেল। বিষয়টি তিনি পুলিশ-প্রশাসনসহ একাধিক নেতাকর্মীকে জানান। এতে ক্ষিপ্ত হয় শাহআলম। 

১৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর হোসেন বাবুল জানান, সামান্য ঘটনা নিয়ে শাহআলমের গুলি ছোড়ার বিষয়টি মেনে নিতে পারেননি সোহেল। এ নিয়ে তাদের মনোমালিন্য চলছিল বলে শুনেছি। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শাহআলম দুই হত্যাসহ বেশকটি মামলার আসামি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে

English HighlightsREAD MORE »