অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে গলাকেটে হত্যা, রক্তে গড়াগড়ি খাচ্ছিল শিশু

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৩ আগস্ট ২০২১,   শ্রাবণ ১৯ ১৪২৮,   ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে গলাকেটে হত্যা, রক্তে গড়াগড়ি খাচ্ছিল শিশু

নাটোর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১২:৪৭ ৩ জুন ২০২১   আপডেট: ১২:৪৮ ৩ জুন ২০২১

(ছবি: সংগৃহীত)

(ছবি: সংগৃহীত)

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলায় নিজ ঘরে শাহানুর বেগম নামে আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে গলা ও হাত-পায়ের রগ কেটে হত্যা করা হয়েছে। বুধবার রাতে উপজেলার জোয়াড়ি ইউনিয়নের ভবানীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শাহানুর ভবানীপুর জোলাপাড়া গ্রামের চা দোকানি রাশেদুল ইসলাম রাশেদের স্ত্রী। এ ঘটনায় পুলিশ নিহতের শাশুড়ি রশেনা বেগম ও দেবর আবদুর রশিদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে।

স্থানীয়রা জানান, চলমান লকডাউনে ব্যবসায় মন্দা যাওয়ায় কয়েক দিন আগে শাহানুর বেগমের স্বামী রাশেদ কাজের সন্ধানে ঈশ্বরদী যান। এ সময় তিনি তিন সন্তানসহ বাড়িতেই থাকতেন।

বুধবার রাতে ঘটনাস্থলের পাশেই গানের অনুষ্ঠান চলছিল। শাহানুরের দুই সন্তানকে নিয়ে শাশুড়িসহ পরিবারের সবাই গানের অনুষ্ঠানে যান। এ সময় এক বছরের শিশুসন্তান নিয়ে নিজ ঘরেই ঘুমিয়েছিলেন তিনি।

ফাঁকা বাড়িতে একা থাকার সুযোগে কে বা কারা তাকে হত্যা করে। পরে রাত সাড়ে ১২টার দিকে গানের অনুষ্ঠান থেকে বাড়িতে ফিরে নিহতের আট বছরের শিশুকন্যা তার মায়ের রক্তাক্ত লাশ দেখে চিৎকার করলে পরিবারের সদস্যরা এগিয়ে আসেন।

এ সময় নিহতের এক বছরের শিশুটি মায়ের পাশে রক্তে গড়াগড়ি খাচ্ছিল। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে। বৃহস্পতিবার সকালে সিআইডি এসে প্রাথমিক আলামত সংগ্রহের পর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বড়াইগ্রাম থানার ওসি আনোয়ারুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন। কী কারণে, কারা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে, তা তদন্ত করে পরে জানানো হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম