আপত্তিকর ছবি প্রকাশের ভয় দেখিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ

ঢাকা, সোমবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৫ ১৪২৭,   ০৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

আপত্তিকর ছবি প্রকাশের ভয় দেখিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৩:১৫ ১৯ নভেম্বর ২০২০  

ধর্ষণ (প্রতীকী ছবি)

ধর্ষণ (প্রতীকী ছবি)

মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় গৃহবধূকে ফাঁদে ফেলে আপত্তিকর ছবি প্রকাশের ভয় দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেও ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশের অভিযোগ উঠেছে। ওই ঘটনায় রফিক ও তার বন্ধু মোয়াজ্জেমকে আসামি করে মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) রাতে বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন গৃহবধূ।

অভিযুক্ত ধর্ষক রফিক উপজেলার মিরেরগাঁও এলাকার মফিজুল ছেলে ও তার বন্ধু মোয়াজ্জেম হোসেন আনারপুর এলাকার মতিন প্রধানের ছেলে। ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ উপজেলার টেংগারচর ইউপির মীরেরগাও গ্রামের বাসিন্দা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে গজারিয়া থানার ওসি মো. রইছ উদ্দিন জানান, ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর স্বামী স্থানীয় একটি কারখানার শ্রমিক। কাজের সুবাদে স্বামী বেশির ভাগ সময় বাড়ির বাইরে থাকেন। গত ৩-৪ মাস আগে তার বসতঘরে বৈদ্যুতিক তার ওয়ারিং করাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় ইলেকট্রিশিয়ান রফিকের সঙ্গে গৃহবধূর পরিচয় হয়। পরিচয়ের পর থেকে বাড়িতে আসা-যাওয়া করত ও বিভিন্ন সময় কু-প্রস্তাব দিতো। একদিন কোমল পানীয়র সঙ্গে চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে ওই গৃহবধূর স্পর্শকাতর ছবি ধারণ করে রফিক।

পরে ধারণকৃত ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশের ভয় দেখিয়ে গৃহবধূকে একাধিকবার ধর্ষণ করে রফিক। রফিকের বন্ধু মোয়াজ্জেম গৃহবধূকে রফিকের সঙ্গে এ সম্পর্ক চালিয়ে যেতে বলতো। অন্যথায় ওই ধারণকৃত ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করে দিবে বলে হুমকি দিতো। গৃহবধূ এ সম্পর্ক রাখতে না চাইলে ধর্ষক রফিক গৃহবধূর ওই ছবি সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করলে তা ছড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনায় গৃহবধূ বাদী হয়ে মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) রাতে থানায় মামলা দায়ের করেন।

তিনি আরো জানান, ধর্ষণের শিকার গৃহবধূকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। কার আইডি থেকে কী ধরনের আপত্তিকর ছবি প্রকাশ হয়েছে ও ঘটনার তদন্তসহ আসামি গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম