প্রহরীকে বেঁধে চেয়ারম্যানের ১৬ গরু ডাকাতি, গ্রেফতার ৫

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২১ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৮ ১৪২৭,   ০৬ জমাদিউস সানি ১৪৪২

প্রহরীকে বেঁধে চেয়ারম্যানের ১৬ গরু ডাকাতি, গ্রেফতার ৫

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:০৮ ১১ অক্টোবর ২০২০  

১৬ গরু ডাকাতির ঘটনায় গ্রেফতার ৫

১৬ গরু ডাকাতির ঘটনায় গ্রেফতার ৫

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলায় ২০ লাখ টাকার ১৬টি গরু ডাকাতির ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ সময় ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত একটি ট্রাক, একটি প্রাইভেটকার, তালা কাটার একটি মেশিন, তিনটি চাকু ও হাসিল বই জব্দ করা হয়েছে।

গ্রেফতাররা হলেন- বগুড়ার ধনুট থানার আলাউদ্দিনের ছেলে রাব্বানী হোসেন, ঢাকার ধামরাইয়ের আ. মালেকের ছেলে শহিদুল ইসলাম, সিরাজগঞ্জ সদরের রেজাউল করিমের ছেলে মাসুদ রানা, পাবনার আতাইকুলা থানার আলিম উদ্দিনের ছেলে সবুজ হোসেন ও টাঙ্গাইলের ঘাটাইল থানার গণির ছেলে হুমায়ুন কবির।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রোববার (১১ অক্টোবর) বিকেলে ময়মনসিংহ জেলা গোয়েন্দা শাখার ওসি শাহ কামাল আকন্দ। এর আগে শনিবার (১০ অক্টোবর) রাজধানীর সাভার, পাবনা ও সিরাজগঞ্জে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

ওসি শাহ কামাল আকন্দ বলেন, ২৭ সেপ্টেম্বর রাতে ২২-২৩ জনের ডাকাত দল মুক্তাগাছা উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান আরব আলীর আরব এগ্রো ফার্ম থেকে প্রহরীর হাত-পা বেঁধে ২০ লাখ টাকার ১৬টি গরু ডাকাতি করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় (২৮ সেপ্টেম্বর) মুক্তাগাছা থানায় অজ্ঞাত ২০-২২ জনকে আসামি করে ডাকাতি মামলা দায়ের করেন ভাইস চেয়ারম্যান আরব আলী।

ওসি বলেন, মামলা দায়েরের পর তদন্তভার আসে জেলা গোয়েন্দা শাখায়। তদন্তভার পেয়ে টানা অভিযান চালিয়ে ডাকাতদের পরিচয় নিশ্চিত হলেও তাদের শতভাগ শনাক্ত করতে না পেরে কিছুটা বিলম্ব হয়। শনিবার পাঁচ ডাকাতকে বিভিন্ন জেলায় অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি আরো বলেন, গ্রেফতাররা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেন উদ্ধারকৃত ট্রাক ও মাইক্রোবাস ব্যবহার করে দীর্ঘদিন ধরে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ডাকাতি করে আসছিলেন।

গ্রেফতারদের মধ্যে তিনজন মুক্তাগাছার আরব আলী এগ্রো ফার্ম থেকে গরু ডাকাতির কথা স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়ার পর তাদের জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান ওসি।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম