জাহাজডুবি: এখনো খোঁজ মেলেনি ১৪ নাবিকের

ঢাকা, বুধবার   ০৪ আগস্ট ২০২১,   শ্রাবণ ২০ ১৪২৮,   ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

জাহাজডুবি: এখনো খোঁজ মেলেনি ১৪ নাবিকের

নোয়াখালী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১২:০৫ ১৬ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১৭:১২ ১৬ আগস্ট ২০২০

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

নোয়াখালীর হাতিয়ায় লাইটার জাহাজডুবির ঘটনায় নিখোঁজ ১৪ নাবিক এখনো উদ্ধার হয়নি। চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙ্গর থেকে পণ্য নিয়ে নারায়ণগঞ্জে যাওয়ার পথে শনিবার সকালে গমবোঝাই ‘এমভি আকতার বানু-১’ এবং ভোরে চিনিবোঝাই ‘এমভি সিটি-১৪’ ডুবে যায়। এ সময় ‘এমভি আকতার বানু-১’ জাহাজের ১৪ নাবিক নিখোঁজ হন।

হাতিয়ার ভাসানচর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। রোববার ভোর পর্যন্ত নাবিকদের সন্ধান মেলেনি। তাদের উদ্ধারে কোস্ট গার্ড ও নৌবাহিনীর সদস্যরা কাজ করছেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ লাইটার শ্রমিক ইউনিয়নের সহসভাপতি এবং নৌযান শ্রমিক ফেডারেশনের যুগ্ম-সম্পাদক মো. নবী আলম।

এমভি আখতার বানু-১ জাহাজের শিপিং এজেন্ট ‘লিটমন্ড শিপিং’-এর অপারেশন ম্যানেজার জাহিদ হোসেন বলেন, চট্টগ্রামের পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত থেকে প্রায় ৪০ নটিক্যাল মাইল দূরে হাতিয়া এলাকায় আমাদের একটি জাহাজ ডুবে ১৪ নাবিক নিখোঁজ রয়েছেন। জাহাজটিতে শিল্পপ্রতিষ্ঠান আবুল খায়ের গ্রুপের আনুমানিক এক হাজার ৮০০ টন গম ছিল।

চট্টগ্রাম কোস্ট গার্ড সূত্রে জানা গেছে, ভোরে চট্টগ্রাম বন্দর বহির্নোঙ্গর থেকে দুই হাজার টন অপরিশোধিত চিনি নিয়ে রওনা দেয়া এমভি সিটি-১৪ নামের জাহাজটি হাতিয়ার ভাসানচরের কাছে বঙ্গোপসাগরে ডুবে যায়। এ সময় একটি সিগন্যাল জাহাজ ও কোস্ট গার্ডের সদস্যরা দুর্ঘটনা কবলিত জাহাজের মাস্টারসহ ১৪ জন ক্রুকে জীবিত উদ্ধার করেন।

বিআইডব্লিউটিএ’র উপ-পরিচালক মোহাম্মদ সেলিম জানান, সিটি গ্রুপের ওই জাহাজটি চট্টগ্রাম বন্দর থেকে দুই হাজার টন আমদানি করা চিনি নিয়ে নারায়ণগঞ্জের রূপসীর দিকে যাচ্ছিল। সমুদ্র উত্তাল থাকায় জাহাজে পানি ঢুকে একদিকে হেলে পড়ে। ভোর পাঁচটায় হাতিয়া চ্যানেলের প্রবেশের সময় ভাসানচর এলাকার কাছাকাছি এলে জাহাজটি ডুবে যায়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর