দুলাভাইয়ের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক দেখে ফেলায় মাকে গলা কেটে হত্যা

ঢাকা, শনিবার   ০১ অক্টোবর ২০২২,   ১৫ আশ্বিন ১৪২৯,   ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

Beximco LPG Gas

দুলাভাইয়ের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক দেখে ফেলায় মাকে গলা কেটে হত্যা

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২২:৪০ ৬ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ০০:৩৩ ৭ আগস্ট ২০২০

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে দুলাভাইয়ের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক দেখে ফেলায় মাকে গলা কেটে হত্যা করেছে মেয়ে ও জামাতা। এ ঘটনায় ঘাতক মেয়ে ও জামাতাকে আটক করেছে পুলিশ।

হবিগঞ্জের এসপি মোহাম্মদ উল্ল্যা এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, বীগঞ্জ উপজেলার করগাঁও গ্রামের হিরন মিয়ার বড় মেয়ে জেসমিন আক্তারকে মোগল মিয়ার সঙ্গে বিয়ে দেন। বিয়ের কয়েক বছর পর জেসমিন আক্তার জীবিকার তাগিদে সৌদিআরব চলে যান। এরপর থেকে মোগল মিয়া তার শিশুপুত্র ইয়াসিনকে নিয়ে শ্বশুরালয়ে বসবাস করছেন। এ সুযোগে মোগল মিয়া তার শালিকা শান্তি বেগমের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। একাধিকবার তারা দুইজন শারীরিক সম্পর্কও স্থাপন করে। একসময় তাদের শারীরিক সম্পর্ক চলাকালে ছলেমা বেগমের (মোগল মিয়ার শাশুড়ি ও শান্তি বেগমের মা) হাতে ধরা পড়েন। এ সময় মেয়ে ও জামাতার সম্মানের কথা চিন্তা করে তিনি কাউকে কিছু না জানিয়ে দুজনকে কঠোরভাবে সতর্ক করে দেন। কিন্তু এরপরও তাদের অবৈধ মেলামেশা চলতে থাকে।

ঘটনার দিন (১ আগস্ট) ঈদের দিন রাতে তারা ঘরে আবারো অবৈধ মেলামেশা করতে থাকে। ছলেমা বেগম তাদেরকে দেখে চিৎকার করেন। এ সময় জামাতা মোগল মিয়া ও ছোট মেয়ে শান্তি বেগম মিলে ছলেমা বেগমের মুখ চেপে ধরে ঘরে থাকা দা দিয়ে গলা কেটে হত্যা করে। তার মৃত্যু নিশ্চিত করে মোগল মিয়া নিজ ঘরে গিয়ে রক্তমাখা কাপড় পরিবর্তন করে ঘুমিয়ে পড়েন এবং শান্তি বেগম ডাকাত ডাকাত বলে চিৎকার শুরু করতে থাকেন। এলাকাবাসী এগিয়ে এলে তিনি জানান তার মাকে ডাকাতদল গলা কেটে হত্যা করেছে।

এসপি আরো জানান, এ ঘটনায় নিহতের স্বামী হিরন মিয়া বাদী হয়ে মামলা করেছেন। এ ঘটনায় পুলিশ দুই ঘাতকসহ চারজনকে আটক করেছে। আটকরা হবিগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ

English HighlightsREAD MORE »