প্রিয় পদ্মায় তছনছ রুমনের নতুন সংসার

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২১ জানুয়ারি ২০২১,   মাঘ ৮ ১৪২৭,   ০৬ জমাদিউস সানি ১৪৪২

প্রিয় পদ্মায় তছনছ রুমনের নতুন সংসার

রাজশাহী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:১১ ৮ মার্চ ২০২০   আপডেট: ১৬:২১ ৮ মার্চ ২০২০

রুমন-পূর্ণিমার বিয়ের ছবি

রুমন-পূর্ণিমার বিয়ের ছবি

পদ্মা নদীর রাজশাহীর মহানগরীর শ্রীরামপুর অংশে বর-কনেসহ যাত্রীবাহী নৌকাডুবির ঘটনায় সাতজনের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে। এখনো কনে ও তার তার খালার মরদেহ উদ্ধার করা হয়নি। তাই হাহাকার হৃদয়ে পদ্মার পাড়ে স্বজনসহ বর রুমন প্রিয়তমার অপেক্ষায় রয়েছেন। ছোটবেলায় দাপিয়ে বেড়ানো প্রিয় পদ্মার বুকে অনেক প্রাণসহ তছনছ হয়েছে রুমনের নতুন সংসার।

শোকাতুর রুমন জানান, বন্ধুদের সঙ্গে নৌকার সামনের অংশে বসেন তিনি। আর নৌকার পেছনের অংশে নিজের বোনের সঙ্গে বসেন পূর্ণিমা। পদ্মায় নৌকাডুবির সময় তাদের মধ্যে কিছু দূরত্ব ছিল। তাই পূর্ণিমাকে বাঁচাতে পারেননি তিনি।

তিনি আরো জানান, পদ্মা পাড়ি দিতে দিতে বড় হয়েছেন। চিরচেনা প্রিয় পদ্মার বুকে তার নতুন সংসার তছনছ হবে কখনো ভাবেননি তিনি।

আরো পড়ুন: নববধূ-স্বজন হারিয়ে পদ্মার পাড়ে কাঁদছেন বর রুমন

শ্রীরামপুরের পদ্মাপাড়ে শনিবার সকাল থেকে বর রুমনকে বসে থাকতে দেখা যাচ্ছে। স্বজন ও নববধূর কথা ভেবে বার বার কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি। তার দীর্ঘশ্বাস দেখে স্থানীয়রা আবেগ আপ্লত হয়ে পড়েছেন।

আরো পড়ুন: শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত স্বামীকে ধরে বাঁচার চেষ্টা করেছিলেন নতুন বউ

রাজশাহীর পবা উপজেলার চরখিদিরপুর গ্রামের ইনসার আলীর ছেলে আসাদুজ্জামান রুমন। তার সঙ্গে একই উপজেলার ডাঙেরহাট গ্রামের শাহিন আলীর মেয়ে সুইটি খাতুন পূর্ণিমার বিয়ে হয়। শুক্রবার শ্বশুর বাড়িতে যাওয়ার সময় পদ্মায় বহনকারী নৌকা বিকল হয়। তখন দমকা বাতাসে নৌকাটি উল্টে গেলে বর রুমনসহ বেশ কয়েকজন বেঁচে ফিরেন। কিন্তু নববধূ পূর্ণিমাসহ তার বেশ কয়েকজন স্বজন নদীতে নিখোঁজ ছিলেন। গত দুই দিনে সাতজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। কিন্তু নববধূ ও তার খালা এখনো উদ্ধার হননি।
 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ