পার্কে আড্ডারত ‘বখাটেদের’ কান ধরে ওঠবস করালেন এমপি

ঢাকা, শনিবার   ২৮ নভেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৪ ১৪২৭,   ১১ রবিউস সানি ১৪৪২

পার্কে আড্ডারত ‘বখাটেদের’ কান ধরে ওঠবস করালেন এমপি

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:১৫ ১৬ জুলাই ২০১৯   আপডেট: ২১:২৭ ১৬ জুলাই ২০১৯

ছবি: ডেইলি ‍বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি ‍বাংলাদেশ

পার্কে আড্ডারত ‘বখাটে’ ছেলেদের আটক করে কান ধরে ওঠবস করিয়েছেন নোয়াখালী-৪ সদর-সুবর্ণচর আসনের এমপি একরামুল করিম চৌধুরী। পাশাপাশি তাদেরকে পুলিশেও সোপর্দ করেছেন। এছাড়া তার নির্দেশে প্রায়ই শহরের পার্কে পুলিশি অভিযান চালানো হচ্ছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, মঙ্গলবার দুপরে ১২টার দিকে জেলা শহরের পৌর পার্কে অভিযান চালিয়ে ১৮ জন ছাত্রছাত্রীকে আটক করে সুধারাম থানা-পুলিশ। এর এক ঘণ্টা পর ‘পার্কে আর আসবে না’ এই মর্মে মুচলেকা নিয়ে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়।

এ প্রসঙ্গে সুধারাম থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আবদুল বাতেন ডেইলি ‍বাংলাদেশকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, প্রতিদিন স্কুল ও কলেজ ফাঁকি দিয়ে ছাত্র-ছাত্রীরা পার্কে এসে আড্ডা দেয়। তাই এমপির নির্দেশে পার্কে অভিযান চালিয়ে ওই ছাত্র-ছাত্রীদের আটক করা হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পুলিশের এক এসআই জানান, স্থানীয় এমপির নির্দেশে প্রায় পার্কে অভিযান পরিচালনা করছে পুলিশ। এছাড়া তিনি নিজেও রাস্তায় বখাটে ছেলেদের ধরে কান ধরে ওঠবস করান এবং পুলিশে সোপর্দ করেন। 

মঙ্গলবার এমপি একরামুল করিম চৌধুরী তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে নিজের অভিযানের কিছু ছবি পোস্ট করে সেখানে কিছু কথা জুড়ে দিয়েছেন। 

ডেইলি বাংলাদেশের পাঠকদের জন্য তার ফেসবুক স্ট্যাটাস হুবহু তুলে ধরা হলো- ‘অভিভাবকদের বলছি আপনার সন্তানের খোঁজ খবর রাখুন। স্কুল-কলেজ চলাকালীন সময়ে ক্লাস ফাঁকি দিয়ে পার্কে ঘুরাঘুরি করছে কি না খবর নিন। কোথায় যাচ্ছে, লেখাপড়া করছে কি না খেয়াল রাখুন সুস্পষ্ট ভাবে। স্কুল, কলেজ চলাকালীন সময়ে কোন শিক্ষার্থী পার্কে ঘুরাঘুরি করলে পুলিশ থানায় ধরে নিয়ে শাস্তি প্রদান করবে। আজকেও স্কুল-কলেজ চলাকালীন সময়ে পার্কে শিক্ষার্থীরা আড্ডা দিচ্ছে দেখে পুলিশ থানায় নিয়ে গেছে। আমি পুলিশকে বলে দিয়েছে, ওদের অভিভাবকরা থানায় আসলে তাদের দায়িত্বে ওদেরকে সতর্ক করে ছেড়ে দিতে। আশা করি এ ধরনের ঘটনা পুনরায় না হউক।’

সুবর্ণচর আসনের এমপি একরামুল করিম চৌধুরী

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর